মেইন ম্যেনু

অচেনা মুস্তাফিজে হায়দ্রাবাদের হার

আইপিএলের এবারের আসরের চতুর্থ হার দেখলো সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ। বৃহস্পতিবারের ম্যাচে দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের কাছে তারা হেরেছে ৭ উইকেটের বড় ব্যবধানে। হারলেও ১১ ম্যাচের ৭টিতে জিতে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে এখনও পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষেই আছে ভেডিড ওয়ার্নারের নেতৃত্বাধীন দলটি।

নবম আসরে আজই প্রথমবার মুখোমুখি হয়েছিল হায়দ্রাবাদ ও দিল্লি। যে ম্যাচে হায়দ্রবাদের দেয়া ১৪৭ রানের টার্গেট কোনো চাপ ছাড়াই টপকে যায় দিল্লির ব্যাটসম্যানরা। ইনিংসের ১১ বল হাতে রেখে ৩ উইকেট খুইয়ে তারা করে ফেলে ১৫০। বল হাতে আজও ব্যর্থ ছিলেন বাংলাদেশি ‘কাটার বয়’ মুস্তাফিজুর রহমান। ৪ ওভার বল করে কোনো উইকেট ছাড়াই দিয়েছেন ৩৯ রান।

দিল্লির পক্ষে ব্যাট হাতে বাঁহাতি ওপেনার কুইনটন ডি কক(৪৪) রান করেন। আর চার ও পাঁচ নম্বরে ব্যাট করতে নেমে নিরবিচ্ছিন্ন থেকে দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন সঞ্জু স্যামসন(৩৪) এবং রিশাভ পেন্ট(৩৯)। হায়দ্রাবাদের পক্ষে ইংলিশ অলরাউন্ডার ময়েসেস হেনরিকস নেন ২টি উইকেট।

এর আগে ঘরের মাঠে টসে হেরে ব্যাট করতে নামে হায়দ্রাবাদ। দুই বাঁহাতি ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নারের(৪৬) ও শিখর ধাওয়ানের( ৩৪) রানের ওপরে ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভার থেকে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৪৬ রানের মাঝারি পুঁজি পায় তারা। দিল্লির পক্ষে কালটার নেইল ও অমিত মিশ্রা ২টি করে উইকেট নেন।

তবে সবাইকে ছাপিয়ে এদিন সেরা খেলোয়াড়ের খেতাবটি জিতে নেন আফ্রিকান অলরাউন্ডার ক্রিস মরিস। কেননা, কিপটে বোলিং করে প্রতিপক্ষ হায়দ্রাবাদকে কম রানে আটকে দেয়ার মূল কৃতিত্বটা যে তারই। ৪ ওভার হাত ঘুরিয়ে এদিন মাত্র ১৯ রান খরচায় ১টি উইকেটও তুলে নেন মরিস।

বৃহস্পতিবারের ম্যাচে জিতে পয়েন্ট টেবিলের তিন নম্বরে উঠে এসেছে দিল্লি ডেয়ারডেভিলস। ১০ ম্যাচের ৬টিতে জিতে তাদের পয়েন্ট ১২। শুক্রবার ভিশাখাপত্তনে টেবিলের পাঁচ নম্বরে থাকা মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের মুখোমুখি হবে একেবারে তলানীতে থাকা কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব।