মেইন ম্যেনু

অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে সাংবাদিকের বাবার মৃত্যু

বরিশালে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে দৈনিক যুগান্তরের বরিশাল ব্যুরোপ্রধান আকতার ফারুক শাহীনের বাবা বজলুর রশীদ হাওলাদারের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

পারিবারিক সূত্র জানায়, শুক্রবার বড় ভাইয়ের রুহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া-মোনাজাতের আয়োজন করতে বৃহস্পতিবার সকালে গ্রামের বাড়ি ঝালকাঠির নলছিটিতে যাচ্ছিলেন বজলুর রশিদ ও তার সহধর্মিণী।

নগরীর রূপাতলী বাস টার্মিনাল থেকে বাসে ওঠার পর তাকে এবং তার সহধর্মিণীকে পৃথক সিটে বসতে দেয়া হয়। পথিমধ্যে বাসের ভেতরে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়েন তিনি। এসময় ছদ্মবেশী দুর্বৃত্তরা তার নাকে চেতনানাশক ওষুধ দিয়ে পকেট কেটে সঙ্গে থাকা টাকা নিয়ে সটকে পড়ে।

বাসটি নলছিটিতে পৌঁছার পর সেখানকার লোকজন বজলুর রশিদকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে তাকে শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুরে বজলুর রশিদ মারা যান বলে নিশ্চিত করেছেন মেডিসিন বিভাগের চিকিৎসক ডা. আল মামুন।

মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক ডা. অসিত ভূষন দাস জানান, বজলুর রশিদ ডায়াবেটিস রোগী ছিলেন। অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ার কারণে তার শরীরের সুগার কমে যায়। এ কারণেই তার মৃত্যু হয়।

মৃত বজলুর রশিদ হাওলাদার বরিশাল জেলা সিভিল সার্জন অফিসের স্বাস্থ্য পরিদর্শক ছিলেন। ২০১৫ সালে তিনি সরকারি চাকরি থেকে অবসরে যান।

পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আগামীকাল বাদ জুমা নগরীর সদর রোডের অশ্বিনী কুমার হলের সামনে প্রথম এবং বাদ আসর নলছিটির গ্রামের বাড়িতে দ্বিতীয় নামাজে জানাজা শেষে তার মরদেহ পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হবে।