মেইন ম্যেনু

অটোচালককে পেট্রল দিয়ে পুড়িয়ে হত্যা

কিশোরগঞ্জ: জেলা সদর থানার যশোদল ইউনিয়নে মাদকসেবনে বাধা দেয়ায় এক অটোচালককে হাত-পা বেঁধে পেট্রল দিয়ে পুড়িয়ে মেরেছে স্থানীয় সন্ত্রাসীরা।

নিহত অটোচালকের নাম শামীম (২২)। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে তার গায়ে পেট্রল মারা হলে রাত দেড়টার দিকে মারা যান তিনি। কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধিন ছিলেন তিনি। তার শরিরের ৮০ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিলো বলে হাসপাতালের চিকিৎসক মনোজ কুমার রায় জানিয়েছেন।

স্থানীয়রা জানান, আমাটি শিবপুর গ্রামের শামিমের বাড়ির সামনে বসে নিয়মিত স্থানীয় কয়েকজন সন্ত্রাসী আলামীন, রানা, তৌফিক, শফিক, জনিসহ অজ্ঞাত আরও কয়েকজন মাদকদ্রব্য সেবন করে। বুধবার তাদের বাধা দিলে শামিমের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শামিমকে মারধর করে সন্ত্রাসীরা।

বৃহস্পতিবার শামিম সারাদিন কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে ওই সন্ত্রাসীরা তাকে ডেকে ওই খামারে নিয়ে যায়। সেখানে শামিমের হাত ও চোখ বেঁধে গায়ে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। শামিমের চিৎকার শুনে এলাকাবাসী এসে তাকে উদ্ধার করে কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়।

সেখান থেকে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে রাত দেড়টার দিকে ভৈরবের কালিকাপ্রসাদ এলাকায় শামীমের মৃত্যু হয়।

কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর মোশারফ হোসেন বলেন, এ বিষয়ে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করছে। অপরাধীদের ধরতে রাত থেকেই এলাকায় পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।