মেইন ম্যেনু

অতি আত্মবিশ্বাস ভালো নয় কেন?

জীবনে উন্নতির অন্যতম হাতিয়ার ইতিবাচক চিন্তা ও আত্মবিশ্বাস। এই বলে বলীয়ান লোকজন যেকোনো ক্ষেত্রেই সাফল্য পান। তবে অতি আত্মবিশ্বাস ভালোর বদলে বিপদ ডেকে আনে। শঙ্কা বাড়ায় ভুল সিদ্ধান্ত নেওয়ার।

সাম্প্রতিক এক গবেষণায় উঠে এসেছে এমন তথ্য।

ওই গবেষণার বরাত দিয়ে ইন্দো-এশীয় নিউজ সার্ভিসের (আইএএনএস) খবরে বলা হয়, যাঁরা মনে করেন, বুদ্ধিমত্তা স্থির বিষয় এবং এটা পরিবর্তনযোগ্য নয়, তাঁরাই অতি আত্মবিশ্বাসী হন।

গবেষণাকর্মের অন্যতম লেখক ও যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন স্টেট ইউনিভার্সিটির গবেষক জয়েস আরলিংগার বলেন, ‘ওই ধরনের লোক (যাঁরা মনে করেন, বুদ্ধিমত্তা পরিবর্তনশীল নয়) সহজ কাজে মনোনিবেশ করে তাঁদের অতি আত্মবিশ্বাসের প্রতিফলন ঘটান। বিপরীতে কাজের কঠিন অংশে খুব কমই সময় ব্যয় করেন।’

‘সামান্য বেশি আত্মবিশ্বাস সহায়ক হতে পারে। তবে অতি মাত্রায় আত্মবিশ্বাস লোকজনকে ভুল সিদ্ধান্তে চালিত করতে পারে এবং শেখার সুযোগ থেকে দূরে সরিয়ে রাখতে পারে।’

গবেষকদের মতে, যেসব লোক মনে করেন, বুদ্ধিমত্তা বাড়ানো যায়, তাঁরা কোনো কাজের কঠিন অংশ নিয়ে বেশি সময় ব্যয় করেন। এভাবে তাঁদের সামর্থ্যের চেয়ে আত্মবিশ্বাসের মাত্রা বেড়ে যায়।

গবেষকরা দেখেছেন, অতি আত্মবিশ্বাস ব্যক্তিগত গাড়ির চালক, মোটরসাইকেলচালক, চিকিৎসক ও আইনজীবীদের সাধারণ একটি সমস্যা।