মেইন ম্যেনু

অনলাইনে প্রিয়াঙ্কাকে খুঁজলেই বিপদ!

সময় এখন প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার। বলিউডের মতো হলিউডেও খ্যাতি ছড়িয়ে পড়েছে তার। আমেরিকান টিভি সিরিজ ‘কুয়ান্টিকো’র মাধ্যমে ছোট পর্দায় অভিষেক হয়েছে তার।

বিশ্বসংগীতাঙ্গনে তো আগেই সুনাম কুড়িয়েছেন। দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন বলিউডেও। তাই অনলাইনে এ বছর তিনিই সবচেয়ে সেনসেশনাল তারকার জায়গাটি দখল করলেন।

সাইবার অপরাধীরা ক্ষতিকর সফটওয়্যার বা ভাইরাস তৈরির ক্ষেত্রে প্রধান শব্দ (কি ওয়ার্ড) হিসেবে প্রিয়াঙ্কার নামই বেশি ব্যবহার করছে এ বছর। ফলে ইন্টারনেটে তাঁকে খুঁজতে গেলে কম্পিউটারে ভাইরাস আক্রমণের ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

ইন্টারনেট নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান ইনটেল সিকিউরিটির এক গবেষণায় এ তথ্য বেরিয়ে এসেছে। গত নয় বছর ধরে বিনোদন ও সংস্কৃতিতে সবচেয়ে বিখ্যাত তারকাদের নিয়ে গবেষণা করে আসছে প্রতিষ্ঠানটি। এবারের গবেষণায় বেরিয়ে এসেছে অন্তর্জাল দুনিয়ায় সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ তারকা এখন প্রিয়াঙ্কা। ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা তাকেই বেশি খোঁজে বলে ভাইরাসও বেশি ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে ৩৩ বছর বয়সী এই অভিনেত্রীর নামে।

আগেরবার শীর্ষস্থানটি ছিলো আলিয়া ভাটের দখলে। এবার তিনি নেমে গেছেন আটে। নতুন তালিকায় ছয় থেকে এক লাফে দুইয়ে উঠেছেন শ্রদ্ধা কাপুর। কৌতুকাভিনেতা কপিল শর্মা আছেন তিনে। সবচেয়ে সেনসেশনাল তারকাদের মধ্যে একমাত্র টিভি তারকা তিনিই। চার নম্বরে জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ, পাঁচে কঙ্গনা রনৌত আর ছয় নম্বরে আছেন হৃতিক রোশন। যৌথভাবে সাত নম্বর স্থানটি পেয়েছেন দীপিকা পাড়ুকোন, এমরান হাশমি ও সানি লিওন। আমির খান ও কারিনা কাপুর খান আছেন যথাক্রমে নয় ও দশ নম্বরে।

ইন্টেল সিকিউরিটির গবেষণায় পাওয়া গেছে, এ বছর শীর্ষ দশ তারকা সংশ্লিষ্ট যে কোনো কিছুর টরেন্ট, এইচডি ডাউনলোড ও ফ্রিএমপিফোর পেতে গেলে ১১.৪৭ শতাংশ আশঙ্কা রয়েছে ম্যালওয়্যারসমৃদ্ধ ওয়েবসাইটের ফাঁদে পড়ার।

ইসেকজি ইঞ্জিনিয়ারিং ইন্ডিয়ার প্রধান কর্মকর্তা ভেঙ্কট কৃষ্ণপুর এই গবেষণা প্রসঙ্গে জানান, সাইবার অপরাধীরা পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান, টিভি অনুষ্ঠানের প্রিমিয়ার, চলচ্চিত্রের গানের অ্যালবাম প্রকাশনা, তারকাদের প্রেম কিংবা বিয়ে বিচ্ছেদের প্রতি ভক্তদের আগ্রহের সুবিধা নিতে ওঁত পেতে থাকে। তারা ঝুঁকিপূর্ণ ওয়েবসাইটে ঢুকতে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের লোভ দেখায়। এরপর অনেক স্পর্শকাতর ব্যক্তিগত তথ্যাদি চুরি করে।