মেইন ম্যেনু

অনুপ চেটিয়া জামিনে মুক্ত

উলফা নেতা অনুপ চেটিয়া বৃহস্পতিবার ভারতের গোয়াহাটি কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পেয়েছেন। গত বুধবার তার বিরুদ্ধে দায়ের করা ৪টি মামলার সর্বশেষ মামলায় মুক্তির আদেশ দিয়েছেন আদালত।

আসাম রাজ্যের বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন উলফা নেতা অনুপ চেটিয়াকে কিছুদিন আগে বাংলাদেশ থেকে অনেকটা গোপনে ভারতে হস্তান্তর করা হয়। এরপর তার বিরুদ্ধে মামলাগুলোর বিচারপ্রক্রিয়া শুরু হয়। তখন থেকে পরপর চারটি মামলার মধ্যে তিনটিতে মুক্তির আদেশ দেন আদালত। সর্বশেষ মামলায় জামিন পেলেন তিনি।

১৯৯৭ সালে বাংলাদেশ সীমান্তে অবৈধ পাসপোর্ট এবং বিদেশি মুদ্রা নিয়ে প্রবেশের সময় পুলিশের হাতে আটক হন অনুপ চেটিয়া।

কিছুদিন আগে ভারতের কাছে চেটিয়াকে হস্তান্তরের পর ভারতের প্রধান নিরাপত্তা সংস্থা সিবিআই নভেম্বরের ১৭ তারিখে তাকে আসামের রাজধানী গোয়াহাটি কেন্দ্রীয় কারাগারে নেয়।

ভারতীয় গণমাধ্যম দ্য হিন্দু জানিয়েছে, আদালত তার জামিন মঞ্জুর করেন সন্ত্রাস ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির তৎপরতা প্রতিরোধ আইনে (টাডা- TADA )।

গোয়াহাটি জেলা দায়রা জজ কামরুপ এক লাখ রুপির ব্যক্তিগত বন্ডে চেটিয়ার জামিন মঞ্জুর করেন। এছাড়া আসাম সরকার তার জামিন মঞ্জুরে অনাপত্তিপত্রও দিয়েছে। ফলে তিনি জামিনে মুক্তি পান।

এর আগে আরো দুটি টাডা আইনের মামলায় জামিন পেয়েছিলেন অনুপ চেটিয়া। আসাম সরকার এবং উলফার মধ্যে শান্তি আলোচনায় অংশগ্রহণের শর্তে তাকে এ জামিন দেয়া হয়েছিল।



« (পূর্বের সংবাদ)