মেইন ম্যেনু

অন্যের প্রেমিকার প্রতি কেন আকৃষ্ট হয় পুরুষরা?

বেশির ভাগ পুরুষই মনে করেন তার প্রেমিকা বা স্ত্রীর তুলনায় তার বন্ধুর স্ত্রী বা প্রেমিকা অনেক বেশি আকর্ষণীয়৷ এটি কিন্তু পুরুষদের পরকীয়ার একটা বড় কারণ৷

নিজের স্ত্রী বা প্রেমিকার ক্ষেত্রে আকর্ষণ হারিয়ে ফেললেই সেই পুরুষ অন্যের প্রেমিকা বা স্ত্রীয়ের প্রতি আকর্ষণ বোধ করেন৷ নিজের প্রেমিকা বা স্ত্রীকে বেশির ভাগ সময়ই একঘেয়ে বলে মনে হয়৷ প্রেমিকা বা স্ত্রী যতই সুন্দরী হোননা কেন পুরুষের মন ধরে রাখতে পারেন না৷

এ কারণে স্ত্রী বা প্রেমিকাকেই দায়িত্ব নিয়ে স্বামীর বা প্রেমিকের একেঘেয়েমি দূর করতে হবে৷ অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায়, একজন দম্পতি দীর্ঘদিন একে অপরের সঙ্গে সুখে সংসার করছেন বা প্রেম করছেন দেখে অনেক পুরুষ ভাবনায় পড়েন৷

তাদের মনে হয়, একজন মেয়েকে একজন পুরুষ কীভাবে এতদিন ধরে ভালোবেসে যাচ্ছেন? তবে নিশ্চয়ই তার মধ্যে কিছুতো রয়েছে৷ পুরুষের বারবারই মনে হয়, ওই মহিলার মধ্যে এমন কিছু নিষ্চয়ই রয়েছে যা তার স্ত্রী বা প্রেমিকার মধ্যে নেই৷ এর কারণ পরস্ত্রী বা প্রেমিকার প্রতি অতিরিক্ত আকর্ষণ অনুভব করেন সেই পুরুষ৷

পুরুষদের কাছে একজন নারী আজো খেলনা ছাড়া আর কিছুই নয়৷ ‌‘বন্ধুর রয়েছে আমার নেই’ এ মনোভাব থেকেই পরস্ত্রী বা প্রেমিকার প্রতি আকর্ষণ জন্মায় পুরুষের৷ নারীরা সব সময়ই পুরুষের মন জয় করতে চায় সে কথাই একেবারে অস্বীকার করা যায় না৷ বিবাহিত পুরুষদের অনেকই মহিলাই নিজের ফাঁদে জড়িয়ে ফেলতে চান৷ অনেক সময় পুরুষ নারীর পাতা ফাঁদে শিকার হয় পুরুষ।

গবেষণায় দেখা গেছে, বেশির ভাগ পুরুষই একটি প্রেম বা বিয়ে সম্পর্কে বেশিদিন থাকতে পারেন না৷ তারা জীবনভর সম্পর্ক রক্ষা করলেও মনে মনে হাঁফিয়ে ওঠেন৷ মানসিক ক্লান্তি দূর করতেই পুরুষ অন্য নারীর প্রতি আকৃষ্ট হন৷

অনেক সময় প্রেমিকা বা স্ত্রীর থেকে প্রত্যাশা পূরণ না হলেও তারা অন্য নারীর প্রতি আকৃষ্ট হন৷ এক্ষেত্রে একজন পুরুষ এমন নারীর প্রেমে পড়েন যারা তাদের প্রকৃত জীবনে সুখী৷

পুরুষরা সে জিনিষে সবচেয়ে বেশি ভয় পান তা হলো দায়বদ্ধতা৷ সেক্ষেত্রে অন্যের প্রেমিকা বা স্ত্রীযর সঙ্গে প্রেম করলে দায়বদ্ধতা একেবারেই থাকে না৷ সে কারণেও পুরুষ অন্যের প্রেমিকা বা স্ত্রীর প্রতি আকৃষ্ট হন৷