মেইন ম্যেনু

অপহৃত শিশু আব্দুল্লাহর লাশ উদ্ধার, আটক ৪

কেরানীগঞ্জের মুগার চর এলাকা থেকে অপহৃত শিশু আব্দুল্লাহর (১১) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় চারজনকে আটক করেছে পুলিশ।

অপহরণের পাঁচ দিন পর মঙ্গলবার দুপুরে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফেরদৌস হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, অপহরণ ও হত্যার ঘটনায় চারজনকে আটক করা হয়েছে। তবে আটক ব্যক্তিদের পরিচয় জানান তিনি।

ওসি বলেন, গত ৩০ জানুয়ারি শুক্রবার দুপুরে কেরানীগঞ্জের মুগার চর এলাকা থেকে তাকে অপহরণ করে অপহরণকারীরা।

অপহৃতের নানা মো. মারফত আলী জানান, পরিবারের একমাত্র ছেলে আব্দুল্লাহ। মাঠে ক্রিকেট খেলার কথা বলে বের হলে শুক্রবার দুপুর ২টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টার মধ্যে তাকে অপহরণ করা হয়েছে। পরে আব্দুল্লাহর মা, এক চাচা ও বাসার পাশের এক ফার্মেসি দোকানির মোবাইল নম্বরে অন্য একটি (০১৮৭৯৩৬১৭৯৫) নম্বর থেকে এসএমএস আসে— ‘সন্ধ্যার মধ্যে বিকাশ’ করে সাড়ে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দেওয়া হলে আব্দুল্লাহকে ছেড়ে দেওয়া হবে। অন্যথায় শিশুটিকে হত্যা করা হবে।’

তিনি আরও জানান, অপহরণকারীদের শর্তমতে তাদের দেওয়া একটি বিকাশ নম্বরে শনিবার রাতেই এক লাখ এবং রোববার দুপুরে আরও এক লাখ টাকা পাঠানো হয়। এরপরই বন্ধ হয়ে যায় অপহরণকারীদের মোবাইল নম্বরটি। ঘটনার দিন রাতে আমাদের বাসায় পোশাকধারী পুলিশ হাজির হওয়ার কারণে অপহরণকারীরা তাদের মোবাইল নম্বর বন্ধ করে দেয়। মোবাইল বন্ধ করার আগে তারা এস‌‌এমএস দেয়— ‘আপনারা পুলিশে খবর দিয়েছেন, আমরা নিষেধ করার পরও পুলিশ বাসায় আসছে কেন? বিষয়টি খুব খারাপ হয়েছে!’