মেইন ম্যেনু

‘অপারেশন ক্লিনহার্ট’ দায়মুক্তি আইন বাতিল ঘোষণা

চার দলীয় জোটের আমলে অপারেশন ক্লিনহার্ট অভিযান দায়মুক্তি আইন-২০০৩ অসাংবিধানিক ও বাতিল বলে ঘোষণা করেছেন হাইকোর্ট।

এ বিষয়ে জারি করা এক রুল নিষ্পত্তি করে রোববার বিচারপতি মঈনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি আশরাফুল কামালের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় ঘোষণা করেন।

রোববার মামলাটি সংশ্লিষ্ট বেঞ্চের কার্যতালিকা (কজলিস্টের) আট নম্বরে রাখা হয়।

এর আগে ২০১২ সালের করা রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিএনপি-জামায়াত জোট আমলে ‘অপারেশন ক্লিনহার্ট’ নামে পরিচালিত বহুল আলোচিত অভিযানের কার্যক্রমকে দায়মুক্তি দিয়ে করা আইনটি কেন সংবিধানের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ ও বাতিল ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট।

একই সঙ্গে ওই অভিযানে ক্ষতিগ্রস্ত লোকজনকে ক্ষতিপূরণ দিতে ১০০ কোটি টাকার তহবিল গঠনের কেন নির্দেশ দেয়া হবে না, রুলে তাও জানতে চাওয়া হয়।

দায়মুক্তি দিয়ে করা আইনটি নিয়ে ২০১২ সালের ২৯ জুলাই বিচারপতি মির্জা হোসেইন হায়দার ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের বেঞ্চ রুল জারি করেন।

একই সঙ্গে ওই অভিযানে ক্ষতিগ্রস্তদেরকে ক্ষতিপূরণ দিতে ১০০ কোটি টাকার তহবিল গঠনের কেন নির্দেশ দেয়া হবে না, তাও রুলে জানতে চাওয়া হয়।

আইন, প্রতিরক্ষা ও স্বরাষ্ট্রসচিব, সেনা সদর দপ্তরের কমান্ডার ইন চিফ অব আর্মড ফোর্সেস ও পুলিশের মহাপরিদর্শককে ছয় সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়।

২০০২ সালের ১৬ অক্টোবর থেকে ২০০৩ সালের ৯ জানুয়ারি পর্যন্ত অপারেশন ক্লিনহার্ট নামে যৌথ বাহিনীর অভিযান চালায়। ওই অভিযানে চলা কার্যক্রমকে দায়মুক্তি দিয়ে ২০০৩ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি ‘যৌথ অভিযান দায়মুক্তি আইন, ২০০৩’ জারি করা হয়।

এর বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে আইনজীবী জেড আই খান পান্না ২০১২ সালে ১৪ জুন হাইকোর্টে রিট আবেদনটি করেন। আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী শাহদীন মালিক।