মেইন ম্যেনু

অবশেষে ক্ষমা চাইলেন গোবিন্দ

অবশেষে ক্ষমা চাইলেন গোবিন্দ। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে এক ব্যক্তিকে চড় মারার জন্য মাথা নত করে দুঃখ প্রকাশ করলেন এই বলিউড অভিনেতা।

সন্তোষ রায় নামে এক ব্যক্তি গোবিন্দোর বিরুদ্ধে ২০০৮ সালে মুম্বইয়ের ফিল্মিস্তান স্টুডিওয় ‘মানি হ্যায় তো হানি হ্যায়’ ছবির সেটে তাঁর সঙ্গে দুর্ব্যবহারের অভিযোগ আনেন। মুম্বাই হাইকোর্টে গোবিন্দোর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন তিনি।

মিডিয়াকে তিনি বলেছিলেন, আমি ওনার ফ্যান। ছবির শ্যুটিং দেখছিলাম। কিন্তু ঘটনাটির পর আমি এতটাই আঘাত পাই যে ওনার প্রতি আমার যাবতীয় ভক্তিশ্রদ্ধা হারিয়ে ফেলি।

যদিও ২০১৩ সালে হাইকোর্ট তাঁর দায়ের করা মামলাটি খারিজ করে দেয়, এই যুক্তি দেখিয়ে যে, ঘটনা ঘটে যাওয়ার বছর খানেক বাদে তিনি আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন। মনে হচ্ছে, তাঁকে কেউ গোবিন্দোর বিরুদ্ধে উসকে দিয়েছে।

কিন্তু নাছোড়বান্দা সন্তোষ গত বছর সুপ্রিম কোর্টে যান। তাঁর কথা শুনতে সম্মত হয় সর্বোচ্চ আদালত। নোটিস দেয় গোবিন্দোকেও। মিডিয়া রিপোর্টে প্রকাশ, সন্তোষ প্রথমে অভিনেতার বিরুদ্ধে ফৌজদারি প্রক্রিয়া শুরুর দাবি তুলেছিলেন। পরে তাঁর আইনজীবী জানান, গোবিন্দ ক্ষমা চেয়ে নিলেই হবে। এরপর গোবিন্দ ক্ষমা চাইলেন।