মেইন ম্যেনু

অবশেষে ভিন্ন রংয়ের যমজের দেখা মিলল !

আমেলিয়া ও জেসমিন ব্রিটেনের প্রথম যমজ শিশু যাদের গায়ের রং আলাদা। একই ফুলে জন্ম নেয়ার পরও তাদের গায়ের রং আলাদা। তাদের দুইজনের বয়স এক বছর হয়েছে।

তাদের জন্মের পূর্বে তাদের মা ৩৭ বছর বয়সী লিব্বি এপেলবাইকে জানানো হয় যে, তার যমজ সন্তানদের মাঝে এতো বেশি মিল থাকবে যে, তাদের আলাদা করে চিহ্ন দিয়ে রাখতে হবে। কিন্তু দুরহাম বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে তাদের সন্তানের জন্মের পর ডাক্তারেরাও চমকে যায়। কারণ প্রথমবারের মত তারা আলাদা গায়ের রংয়ের যমজ শিশু দেখতে পান। এমনকি এই যমজ শিশুদের চোখের মণির রংও ভিন্ন।

কিন্তু তাদের জন্মের পর ডাক্তারেরা চিন্তায় পড়ে যান এটা কীভাবে সম্ভব হল। কারণ তাদের দুইজনের মাঝে অনেক পার্থক্য। তাদের মাঝে একজন হয়েছেন তার বাবার মত এবং আরেকজন হুবহু মায়ের মত।

লিব্বি ও তার স্বামী গত বছরের জুন মাসে জানতে পারেন তারা বাবা-মা হতে চলেছেন। লিব্বির সঙ্গী তাফাজাওয়া একজন ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার। এই দুই শিশুর জন্ম এক জিন থেকে। বিজ্ঞানীদের মতে, জিন আলাদা হলে শিশুদের রং ও আকৃতিতে পার্থক্য হতে পারে। কিন্তু এই শিশুদের জিন এক হওয়া সত্ত্বেও এদের মাঝে অনেক পরিবর্তন রয়েছে। এখন বিজ্ঞানীরা তাদের এই পার্থক্য নিয়ে চিন্তিত।–সুত্র: মেট্রো।