মেইন ম্যেনু

নদীর পাড়ে মাটি ভরাট করে ট্রেনিং সেন্টার নির্মাণ

অবৈধ ও আবাসিক গ্যাস সংযোগে চলছে বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান

টিপু সুলতান (রবিন), সাভার থেকে : সাভারের আশুলিয়ায় তুরাগের শাখা নদীর পাড়ে মাটি ভরাট করে গড়ে ওঠা একটি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে।ষ্টিলের নির্মিত চারতলা এই ভবনটিতে দেখা দিয়েছে বড় বড় ফাটল। এঘটনায় ভবনটি থেকে শিক্ষার্থীদের সরিয়ে নেয়া হলেও নির্মান কাজ চালিয়ে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তাগণ।এদিকে বানিজ্যিক ভাবে পরিচালিত হলেও অবৈধ আবাসিক গ্যাস সংযোগ নিয়ে চলছে প্রতিষ্ঠানটি।

শুক্রবার সকালে আশুলিয়া ঘোষবাগে সিঙ্গাপুর পাইলিং সাউথ পয়েন্ট টেষ্ট সেন্টারের পেছনে তুরাগের শাখা নদীর তীর ভরাট করে নবনির্মিত চার তলা ভবনের বিভিন্ন অংশে দেখা গেছে ফাটল।

তুরাগের শাখা নদীর তীরে মাটি ভরাট করে মাত্র চার মাসের মধ্যে গড়ে ওঠা ভবনটিতে দ্বিতীয় বারের মতো ফাটল দেখা দেয়ার পরপরই ভবনটি থেকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শিক্ষার্থীদের সরিয়ে নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে আশুলিয়া থানা পুলিশ।

bandicam 2016-05-06 17-04-22-185

তবে শুক্রবার দুপুরে প্রতষ্ঠানটির ফাটল ধরা ভবনে নির্মান কাজ চলতে দেখা গেছে।অবস্য আশুলিয়া থানার ভারপ্রপ্ত কর্মকর্তা বলছেন তাকে নাকি ট্রেনিংসেন্টার কর্তৃপক্ষ বলেছে এটি স্টিল স্ট্রাকচার(স্টিলের তৈয়রী ভবন)এইরকম ভবন ধ্বসে পড়েনা।কিন্তু ভবনের যে দেয়ালে ফাটল ধরেছে সেই দেয়াল ভেঙ্গে নতুন করে দেয়াল করবে।সরজমিনে দেখাগেল ভিন্ন কিছু যেই দেয়ালে ফাটল ধরেছে সেই দেয়ালের পাশেই চলছে গ্লাস ফিটিংসের কাজ।এখন প্রশ্নহল তবে কি ফাটল ধরা দেয়াল যখন ভাঙ্গাহবে তখন কি গ্লাস গুলো থাকবে না কি দেয়ালের সাথে গ্লাস গুলোও ভেঙ্গে ফেলবে উত্তর খুজতে কতৃপক্ষের বক্তব্য পেতে সংবাদ কর্মীদের তিন ঘন্টা অপেক্ষা, তারপরও কতৃপক্ষের দেখা মেলেনি।

bandicam 2016-05-06 17-03-56-762

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ব্যক্তি জানান, আগে ছিল খাল এখন তা ভরাটকরে বানিয়েছে বহুতল ভবন, কিছুদিন আগে ভবনটি চকচকাই ছিল কিন্তু ভুমিকম্প হবার পরপরই ভবনের গায়ে ফাটল দেখা দিচ্ছে, তিনি আরও বললেন এখানে প্রশিক্ষন নিতেআসা ছাত্ররা আতঙ্কিত তারা কতৃপক্ষের ভয়ে কথা বলতে পারেনা।


* অবৈধ গ্যাস সংযোগে চলছে এই কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রেটি
* নির্মিত চারতলা ভবনে দেখা দিয়েছে বড় বড় ফাঁটল
* তুরাগের শাখা নদীর পাড়ে মাটি ভরাট করে গড়ে উঠে প্রতিষ্ঠানটি


সংবাদ কর্মীরা ট্রেনিংসেন্টারের ছাত্রদের সাথে কথা বলতে গেলে এক প্রশিক্ষক তাদের দিকে তেড়ে এসে অকথ্য ভাষা প্রয়োগ করে(গালী)তাদের জোড়করে ট্রেনিংসেন্টারের ভেতরে পাঠিয়েদেন।

এদিকে ভবন ফাটলের সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে সংবাদ কর্মীদের চোখ কপালে, প্রতিষ্ঠানটির পেছন দিয়ে সুকৈাশলে এলাকাটির আবাসিক গ্যাস সংযোগ থেকে অবৈধ ঝুকিপূর্ন ভাবে বানিজ্যিক প্রতিষ্ঠানিটতে গ্যাস সংযোগ নিয়ে তা ব্যবহার করতে দেখার দৃশ্য।অবৈধ গ্যাস সংযোগে এলাকাবাসি বাধা দিলেও তাতে কর্নপাত করেনি প্রতিষ্ঠানটি।

567890

এব্যপারে মাহাবুব আলম নামে একজন এলাকাবাসী আওয়ার নিউজ বিডিকে জানায় গত দেড়মাস আগে রাতের আঁধারে যখন গ্যাস সংযোগ দেওয়া হচ্ছিল তখন এলাকাবাসী বাধাদিলেও স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তিদের উপস্থীতিতে গ্যাস সংযোগের কাজ করানো হয়। আর ট্রেনিংসেন্টারের অনিয়মের ব্যপারে কারও সাথে কথা বললেও আসে নান রকমের হুমকি।

এঘটনায় ইতিমধ্যে ভবনটি শিক্ষার্থীদের সরিয়ে নেয়া হয়েছে উল্লেখ করে তদন্ত করে অবৈধ সংযোগের ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মহসিনুল কাদির।



bandicam 2016-05-06 17-05-12-086 bandicam 2016-05-06 17-04-22-185 bandicam 2016-05-06 17-04-45-507 bandicam 2016-05-06 17-50-52-343