মেইন ম্যেনু

অমিতাভকেই ভারতের রাষ্ট্রপতি হিসেবে চান মোদি

অভিনেতা থেকে রাষ্ট্রপতি! এমনটা প্রায়শই কোনো সিনেমায় দেখা গেলেও বাস্তবে এমন উদাহারণ পাওয়াটা খুবই দুস্কর। আর এমন দুস্কর কম্মটায় হতে পারে পাশের দেশ ভারতেই! হ্যাঁ।

ভারতের পরবর্তী রাষ্ট্রপতি হিসেবে দেখা যেতে পারে বলিউডের মেগাস্টার খ্যাত তারকা অভিনেতা অমিতাভ বচ্চনকে। কারণ বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিরই যে রাষ্ট্রপতি হিসেবে প্রথম পছন্দ এই তারকা অভিনেতাকে!

দু’ সপ্তাহ আগে প্রথমবার অভিনেতা ও বর্তমান বিজেপি নেতা শত্রুগ্ন সিনহার তরফ থেকে জানা গিয়েছিল যে, ভারতের বর্তমান রাষ্ট্রপতির মেয়াদ শেষ হচ্ছে শিগগিরই। আর বিজেপি সরকারের কাছে নতুন রাষ্ট্রপতি হিসেবে প্রথম পছন্দ বলে বলিউডের মেগাস্টার অমিতাভ বচ্চনের নাম প্রস্তাব করে আলোচিত হন তিনি।

বিহারের এক সভায় অমিতাভকে রাষ্ট্রপতি হিসেবে দেখতে চান দাবী করে শত্রুগ্ন বলেছিলেন যে, যদি অমিতাভ বচ্চনের মতো একজন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব দেশের রাষ্ট্রপতি হন, তবে তা খুবই গর্বের ব্যাপার।

সামাজিক ও সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে তিনি প্রচুর মাইলস্টোন ছুঁয়েছেন। তাই তিনি রাষ্ট্রপতি হলে দেশের নাম আরও উজ্জ্বল হবে।

অভিনেতা, বর্তমান সময়ে জনপ্রিয় নায়িকা সোনাক্ষির পিতা এবং বিজেপির এই নেতার এমন প্রস্তাবের পরই ভারতের পরবর্তী রাষ্ট্রপতি হিসেবে অমিতাভের নামকেই সর্বোচ্চ প্রাধান্য দিয়ে বিবেচনা করছে মোদির বিজেপি।

তাছাড়া মোদিরও ব্যক্তিগতভাবে অমিতাভ বচ্চনকেই নাকি ভারতের পরবর্তী রাষ্ট্রপতি হিসেবে প্রথম পছন্দ! এমন খবর জানিয়েই খবর প্রকাশ করেছে বলিউড লাইফ, জি-নিউজসহ ভারতের শীর্ষস্থানীয় সংবাদ মাধ্যম।

এই বিষয়ে বিজেপির সিনিয়র নেতা অমর সিং গণমাধ্যমে বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলিউডের কিংবদন্তি অভিনেতা অমিতাভ বচ্চনকে ভারতের পরবর্তী রাষ্ট্রপতির পদে আসিন হতে প্রস্তাব করার পরিকল্পনা করছেন।

শিগগিরই অমিতাভ বচ্চনের কাছে রাষ্ট্রপতির পদে আসিন হতে মোদি আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব করবেন বলেও জানান এই নেতা।

অমর সিং নামের ওই নেতা আরো বলেন, ‘পা’ সিনেমা মুক্তির সময় আমিই প্রথমবার অমিতাভের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী মোদির পরিচয় করিয়ে দিয়েছিলাম। তখন মোদি গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। আর এরপর থেকেই তাদের মধ্যে বন্ধুত্ব গাঢ় হয়।

বিজেপি, মোদি সবার থেকেই মোটামুটি সিদ্ধান্ত পাকাপোক্ত যে ভারতের চৌদ্দতম রাষ্ট্রপতি হিসেবে চূড়ান্ত মনোনয়ন পাচ্ছেন সুপারস্টার অমিতাভ। কিন্তু এখন পর্যন্ত অমিতাভের পক্ষ থেকে এই বিষয়ে টুঁ শব্দটিও পাওয়া যায়নি।

এখন দেখার বিষয়, ভারতের পরবর্তী রাষ্ট্রপতি হিসেবে মোদির প্রথম পছন্দ অমিতাভ সিনেমা ছেড়ে রাষ্ট্রপতির পদে আসিন হন কিনা!