মেইন ম্যেনু

অমূল্য প্রাণ সহজেই ঝরছে সড়কে

ঈদের ছুটি শেষে মহাসড়কে যানবাহনের চলাচল কমেছে। তবে থামছে না সড়ক দুর্ঘটনা, থামছে না মৃত্যু। আজও দেশের বিভিন্ন এলাকায় অন্তত ১৫ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

ঈদুল আযহার পরদিন ১৪ সেপ্টেম্বর থেকেই প্রতিদিন দুর্ঘটনায় ব্যাপক হারে মৃত্যুর খবর আসছে। সড়কে প্রাণহানির জন্য সেতু পরিবহন ও সড়ক মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের চালকদের অতিরিক্ত ট্রিপের লোভকে দায়ী করেছেন। তিনি বলেন, বেশি ট্রিপ দেয়ার লক্ষে চালকরা বেপরোয়াভাবে গতিতে গাড়ি চালান। যার ফলে প্রাণ যাচ্ছে যাত্রীদের। দুর্ঘটনায় মৃত্যুর ঝুঁকি কমাতে সারাদেশে ঝুঁকিপূর্ণ একাধিক এলাকা চিহ্নিত করে সড়ক উন্নয়নের কাজ চলছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

প্রতিনিধিদের পাঠানো প্রতিবেদনগুলো পর্যালোচনা করে দেখা যায়, মুখোমুখি সংঘর্ষ ছাড়াও দ্রুত গতিতে চলতে গিয়ে পথচারীদেরকে চাপা দিয়েছে বেশ কিছু গাড়ি।

দুই গাড়ির সংঘর্ষ

মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখানে ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে মারা গেছে চারজন। আহত হয়েছে কমপক্ষে ৩০ যাত্রী। দুপুরে মহাসড়কের কুচিয়ামোড়া এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

দুপুরে মহাসড়কের কুচিয়ামোড়া রামের কান্দা এলাকায় ছামছু ফিলিং স্টেশনের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইয়ার দৌস হাসান জানান, ঢাকাগামী প্রচেষ্টা পরিবহন এবং মাওয়াগামী গাংচিল পরিবহনের ‍মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার পর মহাসড়কে ২০ মিনিট যান চলাচল বন্ধ থাকে।

সকালে বগুড়ার শেরপুরের মির্জাপুর আমবাগান এলাকায় লোহার অ্যাঙ্গেল বোঝাই ট্রাকের সঙ্গে বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষের লোহার অ্যাঙ্গেল ঢুকে বাসচালকসহ দুই জন নিহত হয়েছে। আহত হয় অন্তত ২৫ জন। এদের মধ্যে দুই জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

শেরপুর ফায়ার সার্ভিস জানায়, দুর্ঘটনার পর ঘটনাস্থলেই বাসের চালক নিহত হন। ২৬ জনকে হাসপাতালে নেয়ার পর মেখানে মারা যান আরও একজন।

গাড়ি চাপায় মৃত্যু

মাগুরা-ফরিদপুর সড়কের পারনান্দুয়ালী বড় মসজিদ এলাকায় পিকআপ ভ্যানের চাকায় পিষ্ট হয়ে দুই সাইকেল আরোহী নিহত হয়েছে। সোমবার সকালে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- পল্লী বিদ্যুতের কর্মচারী ইব্রাহীম আলী ও পারনান্দুয়ালী গ্রামের চা দোকানি কুদ্দুস মোল্যা।

পুলিশ জানায়, দুই সাইকেল আরোহী মাগুরা শহরের দিকে আসছিলেন। বড় মসজিদ এলাকায় বিপরীতমুখি পিকআপভ্যান নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তাদের চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। মূমূর্ষ অবস্থায় আহত দুইজনকে মাগুরা সদর হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়।

গোপালগঞ্জে বাসের চাপায় মারা গেছে ব্যাটারিচালিক দুই যাত্রী। আহত হয়েছে আরও চার জন। বিকালে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার মান্দারতলা মাদ্রাসার সামনে এই ঘটনা ঘটে। নিহতদের মধ্যে একজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তিনি বলেন, গোপালগঞ্জে সদরের ভোজেরগাতি গ্রামের কল্পনা বেগম।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিকালে টুঙ্গিপাড়া থেকে ঢাকাগামী কমফোর্ট লাইনের একটি বাস যাত্রীবোঝাই ইজিবাইকটিতে চাপা দেয়। এতে বাইকটি দুমড়েমুচড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই নিহত হন দুই যাত্রী।

একই জেলার কাশিয়ানীর শালবরাতে বাসচাপায় মারা গেছেন মোটরসাইকেল আরোহী সোহেল মোল্লা। সকালে রাজপাট-মুকসুদপুর সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। কাশিয়ানীর রামদিয়া পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক হাদী আব্দুল্লাহ জানান, খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছেন তারা।

চুয়াডাঙ্গায় বাসচাপায় মারা গেছে নয় বছরের শিশু জুবায়ের হোসেন। দুপুরে চুয়াডাঙ্গা-ঝিনাইদহ সড়কের সুবদিয়া বাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, দুপুরে চুয়াডাঙ্গা থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া পূর্বাশা পরিবহন নামে একটি কোচ সুবদিয়া বাজার এলাকায় রাস্তার পাশে দাড়িয়ে থাকা শিশু জুবায়েরকে ধাক্কা দেয়। শিশুটি গুরুতর আহত হয়ে পরে মারা যায়।

কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারী উপজেলার জয়মনিরহাট ইউনিয়নে ট্রাকচাপায় মারা গেছেন ওই ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য সুজা মিয়া। ভোরে কুড়িগ্রাম-ভুরুঙ্গামারী সড়কের জয়মনিরহাট বাজারে এ ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার পর ট্রাকটিকে আটক করে জনতা। তবে তার আগেই পালিয়ে যান চালক। জয়মনিরহাট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন জানান, ইউপি সদস্য সুজা মোটর সাইকেলে করে যাচ্ছিলেন। এ সময় সামনের দিক থেকে দ্রুতগতির ট্রাকটি তাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলে মারা যান।

নোয়াখালীর হাতিয়ায় আট বছরের শিশু সৈকত মারা গেছে পুলিশের গাড়ি চাপায়। দুপুরে উপজেলার আফাজিয়া বাজারে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

হাতিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গোলাম ফারুক জানান, দুপুরে পুলিশের হটল গাড়ি আফাজিয়া বাজারের রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিল। সৈকত হঠাৎ দৌড়ে রাস্তায় চলে এলে গাড়ির সঙ্গে তার ধাক্কা লাগে। এতে গুরুতর আহত হয় সে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে তার মৃত্যু হয়।