মেইন ম্যেনু

অর্ধেক ওজন কমেছে ৫০০ কেজির সেই নারীর

বিশ্বের সবচেয়ে মোটা নারী হিসেবে পরিচিত মিসরের ৫০০ কেজি ওজনের সেই নারী সার্জারির পর অর্ধেক ওজন হারিয়েছেন বলে জানিয়েছেন। ইমান আহমেদ আব্দ আল আতি নামের মিসরীয় এই নারীর চিকিৎসা চলছে ভারতের একটি হাসপাতালে।

ইমান আহমেদ আব্দ আল আতির পরিবার বলছে, তার প্রকৃত ওজন ৫০০ কেজি ছিল। গত ২৫ বছর ধরে তিনি বাড়ি থেকে বের হতে পারতেন না।

দুই মাস আগে মুম্বাইয়ের সাইফি হাসপাতালে ব্যারিয়াট্রিক সার্জারি করা হয় আতির। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছে, ওই নারী এখন হুইল চেয়ারে বসার উপযুক্ত হয়েছেন এবং এতে দীর্ঘসময় ধরে বসতে পারবেন। ব্যারিয়াট্রিক সার্জন মুফাজ্জল লকদাওয়ালার নেতৃত্বে চিকিৎসকদের একটি দল আতির সার্জারিতে অংশ নেন।

সার্জারির পর ওজন অর্ধেক কমে যাওয়ায় আতির নতুন ছবি প্রকাশ করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

ইমানের পরিবার বলছে, জন্মের সময় তার ওজন ৫ কেজি ছিল। ১১ বছর বয়সের সময় থেকে তার শরীরের ওজন অস্বাভাবিকভাবে বাড়তে থাকে। যে কারণে ছোটবেলা থেকেই সে হাঁটতে পারছিল না; হামাগুড়ি দিয়ে চলাফেরা করতো।

তার জন্যে নির্মিত বিশেষ একটি বিছানায় শুয়ে ইজিপ্ট এয়ারের বিমানে করে তিনি মিসরের আলেকজান্দ্রিয়া থেকে ভারতে এসে পৌঁছেছেন। প্রথমে একটি ট্রাকে করে তাকে হাসপাতালে আনা হয় এবং পরে ক্রেনের সাহায্যে পুরো বিছানাটিকেই হাসপাতালে তোলা হয়। বিশ্বের সবচেয়ে স্থুলকায় এই নারীর চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে তৈরি করা হয়েছে বিশেষ একটি ঘর।

সূত্র : বিবিসি।