মেইন ম্যেনু

অলিম্পিকেও আর্জেন্টিনার স্বপ্নভঙ্গ

আরও একবার হতাশার কালো মেঘে ছেয়ে গেল আর্জেন্টিনার ফুটবল। ধূলিসাৎ হলো শিরোপাস্বপ্ন। বিশ্বকাপ ফুটবল, কোপা আমেরিকার দুটি আসর; এবার অলিম্পিকেও শিরোপাহীন রইল দিয়াগো ম্যারাডোনা-লিওনের মেসিদের দেশ। ব্রাজিলে চলমান রিও অলিম্পিক গেমসের পুরুষ ফুটবলে বুধবার (১০ আগস্ট) রাতে গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিতে হয়েছে আর্জেন্টিনাকে। এ রাতে হন্ডুরাসের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে তারা। ফলে গোলব্যবধানে পিছিয়ে থাকায় আসরের পর্ববর্তী রাউন্ডের ছাড়পত্র যোগাড়ে ব্যর্থ হয়েছে ম্যারাডোনা-মেসিদের উত্তরসূরিরা।

ডি-গ্রুপে এটি ছিল শেষ ম্যাচ। শক্তির বিচার ও ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে বহুগুণ এগিয়ে ছিল আর্জেন্টাইনরাই। তারা দু’বারে অলিম্পিক স্বর্ণজয়ী। র‌্যাঙ্কিংয়ে এক নম্বর স্থানটি তাদের দখলে। অন্যদিকে, হন্ডুরাসের অবস্থান র‌্যাঙ্কিংয়ের ৮২ নম্বরে। কিন্তু তাই বলে ম্যাচে আর্জেন্টিনার বশ্যতা স্বীকার করেনি হন্ডুরাসের ফুটবলাররা। শুরু থেকেই সমান তালে লড়েছে তারা।

ম্যাচের প্রথমার্ধ গোলশূন্যই থেকেছে। যদিও এই অর্ধের শেষ মিনিটে এগিয়ে যেতে পারত হন্ডুরাস। তবে পেনাল্টি পেয়েও তা থেকে গোল করতে ব্যর্থ হন ব্রায়ান অ্যাকোস্তা।

ম্যাচে আরও দু’বার পেনাল্টি পায় হন্ডুরাস। বিরতির পরপরই পেনাল্টি পেলেও তা থেকে গোল করতে ব্যর্থ হন অ্যাঞ্জেল কোরেরা। তবে ৭৫ মিনিটে পেনাল্টি থেকেই দলকে গোল এনে দেন হন্ডুরাসের অ্যান্থোনি লোজানো। হন্ডুরাস এগিয়ে যায় ১-০ গোলে।

এরপর ম্যাচের ইনজুরি টাইমে ফ্রি কিক থেকে গোল করে আর্জেন্টিনাকে ১-১ সমতায় ফেরান মৌরিসিও মার্তিনেজ। তবে আর্জেন্টাইনদের জন্য তা যথেষ্ট ছিল না। কেননা, পরবর্তী রাউন্ডের ছাড়পত্র পেতে হলে এই ম্যাচে জয় পেতেই হতো তাদের। গোল ব্যবধানে এগিয়ে থাকলেও সুযোগ থাকতো টিকে থাকার। কিন্তু সেখানেও ব্যর্থ হয়েছে তারা। ফলে আসর থেকে বিদায় ঘন্টা বেজেছে তাদের।

প্রসঙ্গত, গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে পর্তুগালের কাছে হেরেছিল আর্জেন্টিনা। দ্বিতীয় ম্যাচে আলজেরিয়ার বিপক্ষে জয় পেয়েছিল।