মেইন ম্যেনু

অল্পের জন্য বেঁচে গেলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ ও তার পরিবারের সদস্যরা অল্পের জন্য বেঁচে গেলেন। তাদের বহনকারী গাড়ি লক্ষ্য করে ধেয়ে আসা সন্দেহভাজন গাড়িটির গতিরোধ করা না গেলে হয়তো ঘটে যেত ইতিহাসের জঘন্য হত্যাকাণ্ড।

রোববার রাতে পাঞ্জাব প্রদেশের মুরে শহর থেকে রাজধানী ইসলামাবাদে আসার পথে প্রধানমন্ত্রী নওয়াজের গাড়িবহর লক্ষ্য করে ধেয়ে আসে একটি গাড়ি। নওয়াজ শরিফকে বহনকারী গাড়িটিকে ওভার টেকিং করার চেষ্টা করছিল ওই গাড়িটি এবং তার গাড়ির দিকে এগিয়ে যাচ্ছিল। গাড়িটি বেপরোয়াভাবে প্রধানমন্ত্রীর গাড়িবহরে মধ্যে ঢুকে যাওয়ায় মুহূর্তে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়। সেই অবস্থায় প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তারক্ষীরা গাড়িটির গতিরোধ করতে সক্ষম হয়।

ওই গাড়িটি জব্দ করে তার চালককে গ্রেফতার করে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তাকর্মীরা। গাড়িটির নম্বর প্লেটে যে নম্বর লেখা ছিল, তা ভুয়া। ফলে এই ঘটনাকে আত্মঘাতী হামলার পরিকল্পনা বলে মনে করছেন নিরাপত্তা বিশ্লেষকরা।

সন্দেহভাজন গাড়িচালককে জিজ্ঞাসাবাদ করছেন নওয়াজ শরিফের নিরাপত্তাকর্মীরা। এদিকে একটি বোমা বিশেষজ্ঞ দল গাড়িতে তল্লাশি চালিয়েছে। তবে গাড়িতে কোনো বোমাযুক্ত ছিল কি না, তা এখনো জানা যায়নি।

এই ঘটনার পর নওয়াজ শরিফ, তার স্ত্রী কুলসুম ও মেয়ে মরিয়মকে দ্রুত ইসলামাদে নিয়ে যাওয়া হয়।

সম্প্রতি পাকিস্তানের উগ্রবাদীগোষ্ঠী লস্কর-ই জাঙভির নেতা মালিক ইশাক পুলিশের এনকাউন্টারে নিহত হয়। এরপর নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, নেতা হত্যার প্রতিশোধ নিতে বড় ধরনের হামলা চালাতে পারে লস্কর-ই জাঙভি। হয়তো সেরকম কোনো হামলার পরিকল্পনা থেকে বেঁচে গেলেন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ।

তথ্যসূত্র : এক্সপ্রেস ট্রিবিউন, ইন্ডিয়া ডুটে, এনডিটিভি অনলাইন।