মেইন ম্যেনু

অশ্বিনের চোটে কপাল খুললো ভাজ্জির

বিপদ এলে নাকি চারদিক থেকে আসে। ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির জন্য এটা এখন বাস্তব সত্য। টি২০ সিরিজ এক ম্যাচ হাতে রেখে হেরে যাওয়ায় ক্যাপ্টেন কুলের বিস্তর সমালোচনা হয়েছে। কানপুরে প্রায় জেতা ম্যাচ হেরে বসায় ধোনির মুণ্ডুপাত করছে ভারতীয় সমর্থকরা। পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ দক্ষিণ আফ্রিকা স্কোরলাইন ১-০ করে ফেলেছে। একের পর এক হারছে ভারত। তার সঙ্গে এদিন বড় ধাক্কা হয়ে এসেছে টিম ইন্ডিয়ার সেরা বোলার রবিচন্দ্র অশ্বিনের চোট।

১৪ অক্টোবর ইন্দোরে খেলা হচ্ছে না অশ্বিনের। তবে তার ক্রিকেটে ফিরতে আরও কতদিন লাগবে সে ব্যাপারে নিশ্চিত কিছু জানা যায়নি। অশ্বিনের স্থলাভিষিক্ত করা হয়েছে দলের বাইরে থাকা হরভজন সিংকে। ২৯ অক্টোবর দীর্ঘদিনের বান্ধবী গীতা বসরাকে বিয়ে করতে যাচ্ছেন তিনি। তার আগে ভারতীয় দলে আবার যোগ দেওয়াটা ভাজ্জির জন্য সৌভাগ্যই বটে। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) টুইটার বার্তায় জানিয়েছে, ‘রবিচন্দ্র অশ্বিন চোটে পড়েছে। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে হরভজনকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।’

৩৫ বছর বয়সী হরভজন সর্বশেষ ওয়ানডে খেলেছেন গত জুলাইয়ে জিম্বাবুয়েতে। অশ্বিনের চোট আবার তার সামনে ওয়ানডের দুয়ার খুলে দিল। এদিন কানপুরে সবমিলে ৪.৪ ওভার বল করতে পেরেছেন অশ্বিন। তিনি চোটে পড়েন প্রোটিয়া ইনিংসের৩২ তম ওভারের সময় নিজের বোলিংয়ে ফিল্ডিং করতে গিয়ে। এরপরই তাকে ব্যথা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়। অথচ নিজের প্রথম ওভারে কুইন্টন ডি ককের উইকেট নিয়ে দারুণ শুরুর ইঙ্গিত দিয়েছিলেন অশ্বিন। শেষ পর্যন্ত ভারতকে পাঁচ রানে হারতে হলো একই সঙ্গে হারাতে হলো অশ্বিনকেও। ধোনির জন্য সামনের ম্যাচগুলো হয়ে দাঁড়ালো অগ্নিপরীক্ষার।



« (পূর্বের সংবাদ)
(পরের সংবাদ) »