মেইন ম্যেনু

অস্ত্র ও তরুণীসহ গ্রেফতার সেই এমপির পুত্র শ্রীঘরে, নানা নাটকীয়তা

আটকের পর থেকে নানা ধরণের নাটকীয়তা হয়েছে। অবশেষে আলোচিত সেই যুবককে পাঠানো হল শ্রীঘরে। সাতক্ষীরার সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য রিফাত আমিনের ছেলে সাফায়াত সরোয়ার রুমনকে মোটরযান আইনে গ্রেফতার দেখিয়ে সন্ধ্যায় কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে শুক্রবার বিকেলে শ্যামনগর থানায় মোটরযান আইনে মামলাটি করা হয়। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শ্যামনগরের মুন্সিগঞ্জ এলাকার বর্ষা রিসোর্টের ১০৪ নাম্বার রুম থেকে তিন তরুণীসহ তাকে আটক করে পুলিশ। এসময় তার কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল ও ৪৩ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। জব্দ করা হয় সংসদ সদস্যের স্টিকার সম্বলিত গাড়িটি।

অভিযোগ উঠেছে, পুলিশের হাতে আটকের পর থেকেই ছেলেকে থানা থেকে ছাড়াতে জোর চেষ্টা তদবির শুরু করেন মহিলা সংসদ রিফাত আমীন। তিনি বলেন, সিগনাল দিলে রুমন গাড়ি না থামানোয় বিব্রতকর অবস্থায় পড়ে পুলিশ। বিষয়টি তেমন কিছু না। অস্ত্রটি আমার নামে লাইসেন্স করা।

বৃহস্পতিবার রাতে শ্যামনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইনামুল হক জানান, এমপিরপুত্রের বিরুদ্ধে অন্যের লাইসেন্সকৃত পিস্তলের বেআইনি ব্যবহার, বেপরোয়া গাড়ি চালানো, অসামাজিক কার্যকলাপ ও সংসদ সদস্যের স্টিকার যুক্ত গাড়ি ব্যবহারের অভিযোগে মামলা হয়েছে। মামলা নম্বর ৩৩। তবে শুক্রবার সকাল থেকে তিনি আর ফোন ধরেননি।

শুক্রবার দুপুরে কালিগঞ্জ সার্কেলের এএসপি মনির হোসেন বলেন, তার অপরাধের বিষয়টি পর্যালোচনা করা হচ্ছে। তবে বিকালে তিনি জানান, সংসদ পুত্রের বিরুদ্ধে যানবাহন আইনে একটি মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। আত্মীয় হওয়ায় তিন তরুণীকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।