মেইন ম্যেনু

অ্যাক্সেসরিজ দিয়ে যেভাবে সেরা স্টাইলিশ হবেন

শপিং করতে গিয়ে হরেকরকম অ্যাক্সেসরিজ় চোখ টানে। কেনার সময় বুঝে উঠতে পারেন না কোনটা কিনবেন। একটা সুন্দর ব্যাগ বা কানের সুইট একটা দুল আপনাকে করে তুলতে পারে ফ্যাশনিস্তা। খুব জমকালো পোশাক না পরেও আপনি সবার চোখে তাক লাগিয়ে দিতে পারেন। তাই বলি, বুঝে শুনে অ্যাক্সেসরিজ কিনুন ।

ইয়ার রিং… ইয়ার রিং বা কানের দুল হল মেয়েদের সেরা পছন্দের জিনিস । কানে এক জোড়া দুল মুখের আদলটাই পালটে দিতে পারে। মুক্তোর দুল। ককটেল পার্টি থেকে শুরু করে সাবেকি কোনও অনুষ্ঠান, ক্যাজুয়াল কোনও আউটিং, মুক্তো সবেতে মানিয়ে যায় । সঙ্গে আছে অভিজাত্যের ছোঁয়াও । দিনের বেলায় সাধারণ পোশাকের সঙ্গেও পরা যায় মুক্তো। স্টকে রাখতে পারেন সিলভার আর গোল্ডেন দুল। বেশি গর্জিয়াস নয়, আবার খুব ম্যাড়মেড়েও নয় । একটা ছোট্ট সাদা স্টোন স্টাড কানের দুলের বাক্সে রাখতে হবে। ভারী দুল না পরতে চাইলে, স্টাড পরতেই পারেন। তবে হ্যাঁ, জামার সঙ্গে বেমানান দুল পরবেন না । তাতে পুরো সাজটাই মাটি হয়ে যায় ।

সানগ্লাস… সানগ্লাস জিনিসটা জেন্ডার বায়াস্ড নয় । ছেলেমেয়ে উভয়ের পছন্দের অ্যাক্সেসরিজ। এখন আর কারো কাছে একটা সানগ্লাস থাকে না। নানা রঙের, নানা শেডের সানগ্লাস সংগ্রহ করাও এখন একটা ট্রেন্ড। বাটারফ্লাই, রাউন্ড, স্কয়ার, ওয়েফেয়ার, ওভাল, ক্যাটআই, এভিয়েটর এখন বাজার মাতাচ্ছে । তবে সানগ্লাসের কালেকশনে একটা কালো চশমা রাখা উচিত। সব ধরনের পোশাকের সঙ্গে সেটা দিব্যি মানিয়ে যায় ।

হাত ঘড়ি… নেক্সট হল হাত ঘড়ি। মেয়েরা কেন, ছেলেরাও রিস্ট ওয়াচের ভক্ত । কালো ব্যান্ড, কালো ডায়েলের হাত ঘড়ি খুব স্মার্ট একটা লুক এনে দেয়। সব ধরনের সাজগোজের সঙ্গে দারুণ মানিয়ে যায়। পার্টিতে পরতে হলে সরু সোনালি বা রুপোলি রিস্ট ওয়াচ মেয়েদের জন্য আদর্শ।

চশমা… আন কুল চশমাও এখন হিট । রিমলেস, হাফ রিম বা কালো মোটা ফ্রেম – ফাটাফাটি দেখতে চশমা আপনার ব্যক্তিত্বে নতুন মাত্রা এনে দিতে পারে। তাতে আপনি দারুণ স্টাইলিশ তকমাও পেতে পারেন। ব্যাগ… ব্যাগে ভ্যারাইটি চিরকালই ছিল । হ্যান্ড ব্যাগ, টোট ব্যাগ, স্লিং ব্যাগ, কাপড়ের ব্যাগ, চকমকে ব্যাগ, ঝোলা, ক্রিসক্রস – ব্যাগের ভ্যারাইটি প্রচুর । জামার সঙ্গে মানানসই ব্যাগ নেওয়া উচিত । যে ধরনের ব্যাগ আপনি পছন্দ করেন, তার মধ্যে একটি নিউট্রাল কালার অবশ্যই সংগ্রহে রাখবেন । কালো, সাদা, অফ হোয়াইট, ধূসর, মেরুন, গাঢ় নীল চলতে পারে । গোলাপি, লাল, সবুজ, হলুদ রংগুলি ট্রেন্ডি, কিন্তু সব ধরনের জামার সঙ্গে বেমানান।

পার্স… পয়সা রাখার পার্সটাও কিন্তু জরুরি । সুন্দর, ট্রেন্ডি পার্স এখন মেয়েদের হাতে হাতে ঘুরে বেড়ায় । অনেকের কাছে একাধিক পার্স থাকে। তবে গোলাপি, বেগুনি, কালো, অফ হোয়াইট, মেরুন রঙের পার্সের চাহিদা সবচেয়ে বেশি। ফ্লোরাল বা প্যাটার্ন আঁকা পার্স পেলে আর কী চাই ! সেটাও সমান হিট। তবে কালো, মেরুন, অফ হোয়াইটের মধ্যে একটা রং স্টকে রাখবেন। এই তিনটি রং সব ধরনের পোশাকের সঙ্গে চলে যায় ।

ছাতা… কালো ছাতাকে ছেড়ে প্যাটার্নওয়ালা ছাতা পছন্দ করছেন অনেকে । দাদুর লম্বা ছাতাও এখন কম বয়সিরা ব্যবহার করছে । কিন্তু ফোল্ডিং ছাতাই বেস্ট। চট করে ব্যাগে পুড়ে দিলেই হল। তবে সুন্দর প্যাটার্নের একটা মিষ্টি দেখতে ছাতাও কিন্তু মন্দ হবে না, কী বলুন ? রোদ-বৃষ্টিতে কাজে লাগবে, আবার স্টাইলও হবে ।