মেইন ম্যেনু

অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনের প্রয়োজনীয় ২১ অ্যাপস

অ্যান্ড্রয়েডের অন্যতম সেরা একটি সুবিধা হচ্ছে, অ্যান্ড্রয়েডের অ্যাপসগুলো আইফোনের অ্যাপসের তুলনায় অনেক বেশি স্বাধীন। এজন্য আইফোনের তুলনায় অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপসের সংখ্যাটাও বেশি।

এমন কিছু প্রয়োজনীয় অ্যাপ রয়েছে যেগুলো অ্যাপলের অনুমোদন না পাওয়ায় আইফোনের জন্য নির্মিত হয়নি, ফলে সেগুলো এক চেটিয়াভাবে কেবলমাত্র অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনের জন্যই।

অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনের তেমনই প্রয়োজনীয় ২১টি অ্যাপস নিয়ে সম্প্রতি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ব্যবসা ও প্রযুক্তিবিষয়ক জনপ্রিয় নিউজপোর্টাল বিজনেস ইনসাইডার।

মুজেই লাইভ ওয়ালপেপার
প্লে স্টোরে লাইভ ওয়ালপেপারের অনেক ধরনের অ্যাপ রয়েছে। তবে এই অ্যাপটি ভিন্ন ঘরানার। এতে রয়েছে বিখ্যাত সব চিত্রকর্মের ওয়ালপেপার।

কয়েক ঘণ্টা পরপর নানা বিখ্যাত চিত্রকর্ম দিয়ে স্মার্টফোনটিকে আকর্ষণীয় করে তুলবে মুজেই লাইভ ওয়ালপেপার অ্যাপ। প্লে স্টোরে এই অ্যাপটির রেটিং ৪.৪। বিনা মূল্যে ডাউনলোড করা যাবে https://goo.gl/Eph7Ou লিংক থেকে।

অ্যাপলক ফেস/ভয়েস রিকগনেশন

ফোনের তথ্য সুরক্ষার বেশ ইন্টারেস্টিং অ্যাপ এটি। ছবি, ভিডিও, মেসেঞ্জার, এসএমএসসহ অ্যান্ড্রয়েড ফোনের যাবতীয় ফাংশন ও অ্যাপস লক করে রাখা যাবে। আর এসব আনলক করার জন্য প্রয়োজন হবে আপনার ভয়েস অথবা ফেস।

ফলে স্মার্টফোন অন্য কারো হাতে পড়লে চিন্তা নেই, কেননা আপনার ভয়েস অথবা ফেস ছাড়া কোনো অপশনই অন্য কেউ ব্যবহার করতে পারবে না। প্লে স্টোরে এই অ্যাপটির রেটিং ৪.০। বিনা মূল্যে ডাউনলোড করা যাবে https://goo.gl/fP2c3c লিংক থেকে।

অ্যাভাস্ট মোবাইল সিকিউরিটি অ্যান্ড অ্যান্টিভাইরাস
গুগল প্লেস্টোরের সব অ্যাপ যে নিরাপদ, এমনটা কিন্তু নয়। এমন কিছু অ্যাপ রয়েছে যেগুলো ব্যবহারের ফলে আপনার অজান্তেই ফোন থেকে ব্যক্তিগত তথ্য পাচার হতে থাকে কিংবা ভাইরাসে আক্রান্ত হতে পারে ফোনটি। এই বিপদ থেকে রক্ষা করবে অ্যাভাস্টের তৈরি মোবাইল সিকিউরিটি অ্যান্ড অ্যান্টিভাইরাস অ্যাপটি।

এটি ফোন থেকে ভাইরাস চিহ্নিত ও ডিলেট করার পাশাপাশি হ্যাকারদের কৌশলগত তথ্য চুরি থেকেও আপনার ফোনকে নিরাপদ রাখবে অ্যান্টি-থেফট ট্রাকিং ফিচারটির মাধ্যমে। এছাড়া অ্যাপ লক সুবিধাও রয়েছে। শুধু তাই নয়, হারানো ফোন খুঁজে পেতে রয়েছে ফোন লোকেটর ফিচার। প্লে স্টোরে এই অ্যাপটির রেটিং ৪.৫। বিনা মূল্যে ডাউনলোড করা যাবে https://goo.gl/vKe2Q লিংক থেকে।

লাইট ফ্লো লাইট-এলইডি কন্ট্রোল
আপনার অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনটিতে যদি নোটিফিকেশনের ক্ষেত্রে এলইডি লাইট সুবিধা থাকে, তাহলে এই অ্যাপটি ব্যবহার করে দেখতে পারেন। এটি ফোনের নোটিফিকেশন লাইটকে করে তুলবে অনেক বেশি বর্ণিল।

এসএমএস, ইমেইল, ফোন কল, ক্যালেন্ডার রিমাইন্ডার, ফোনের লো ব্যাটারি সিগন্যাল- এসব বিভিন্ন ক্ষেত্রে নোটিফিকেশন লাইটিংকে পছন্দমতো নানা রঙের করা যাবে অ্যাপটির মাধ্যমে। প্লে স্টোরে লাইট ফ্লো লাইট-এলইডি কন্ট্রোল অ্যাপটির রেটিং ৩.৬। বিনা মূল্যে ডাউনলোড করা যাবে https://goo.gl/aeCWi লিংক থেকে।

ফক্স-ফাই
ফক্স-ফাই নামক বিনা মূল্যের এই অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপটি বেশ অভিনব সুবিধার। এই অ্যাপটির মাধ্যমে কোনোরকম অতিরিক্ত ডাটা চার্জ ছাড়াই ফোনটিকে ওয়াই-ফাই হটস্পট হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। এছাড়া ফোনের ইন্টারনেট ইউএসবি, ব্লুটুথের সাহায্যে কম্পিউটারে অথবা ট্যাবলেটে শেয়ার করা যাবে।

যদিও এটা পরিস্কার নয় যে, ফক্স-ফাই কীভাবে এই সুবিধা দেয় তবে ড্রয়েড লাইফ ব্লগ সূত্রে জানা গেছে, অ্যাপটি সম্ভবত ভিপিএন অথবা ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে। প্লে স্টোরে এই অ্যাপটির রেটিং ৩.৯। ডাউনলোড করা যাবে https://goo.gl/ELVvZ লিংক থেকে।

উইকিলিকস
অ্যাপল তাদের অ্যাপ স্টোর থেকে এই অ্যাপটি বাদ দিয়েছে। তবে অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের জন্য এই অ্যাপটি রয়েছে প্লেস্টোরে। অ্যাপটির সমস্যা হচ্ছে, এর কোনো আপডেট করা হয়নি।

তবে আপনি যদি উইকিলিকসের ফাসঁকৃত আগের বিভিন্ন গোপন নথি পড়তে চান, তাহলে এই অ্যাপটি ডাউনলোড করে সেগুলো পড়তে পারেন। প্লে স্টোরে এই অ্যাপটির রেটিং ২.৯। ডাউনলোড করা যাবে https://goo.gl/8jJPZg লিংক থেকে।

লাক্স অটো ব্রাইটনেস

এই অ্যাপটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে ফোনের ব্রাইটনেস নিয়ন্ত্রণ করে। ফলে ফোনের ব্যাটারি সাশ্রয় হওয়ায় চার্জ থাকে অনেক বেশিক্ষণ। বিশেষ করে রাতের বেলা ফোন ব্যবহারের ক্ষেত্রে চোখের জন্য আরামদায়ক এই অ্যাপটি।

রাতের বেলা যতটুকু ব্রাইটনেস দরকার, ঠিকই ততটুকুই স্বয়ংক্রিয়ভাবে সেট করে এই অ্যাপটি। আবার দিনের বেলা ব্রাইটনেস নিজ থেকেই বাড়িয়ে দেয়। প্লে স্টোরে এই অ্যাপটির রেটিং ৪.৫। ডাউনলোড করা যাবে https://goo.gl/VMcha লিংক থেকে। তবে এই অ্যাপটি বিনা মূল্যের নয়। ব্যবহারের জন্য খরচ করতে হবে ৩.৮০ ডলার।

টিটরেন্ট লাইট-টরেন্ট ক্লাইন্ট
অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনে টরেন্ট থেকে খুব সহজে ফাইল ডাউনলোডে এটি পিয়ার-টু-পিয়ার অ্যাপ।

ফ্রি মুভি, মিউজিক অ্যালবাম, সফটওয়্যারসহ প্রভৃতি কিছু দ্রুত ডাউনলোড করা যাবে এই অ্যাপটির সাহায্যে। প্লে স্টোরে এই অ্যাপটির রেটিং ৪.৪। ডাউনলোড করা যাবে https://goo.gl/2ZtRlp লিংক থেকে।

মাইটি টেক্সট: এসএমএস টেক্সট মেসেজিং
অভিনব মেসেজিং সুবিধার হওয়ায় বিশ্বব্যাপী সাড়া ফেলে দিয়েছে এই অ্যাপটি। মেসেজ গ্রহণ বা পাঠানো দুটোই করা যায় এটি দিয়ে।

তবে অ্যান্ড্রয়েড ফোন দিয়ে নয়, বরং কম্পিউটার বা ল্যাপটপ দিয়ে! ফোনের মেসেজ সিঙ্ক্রোনাইজের মাধ্যমে কম্পিউটার বা ল্যাপটপ থেকে ফোনের মেসেজ গ্রহন বা পাঠানো যায়। প্লে স্টোরে এই অ্যাপটির রেটিং ৪.৪। ডাউনলোড করা যাবে https://goo.gl/7HCXc লিংক থেকে।

সারবেরাস অ্যান্টি থেফট
ফোন চুরির পর তথ্য সুরক্ষায় ও ফোন উদ্ধারে অনেক বেশি সুবিধাসম্পন্ন সারবেরাস অ্যান্টি থেফট অ্যাপটি। ওয়েব অথবা এসএমএসের মাধ্যমে চুরি যাওয়া ফোনটিতে নিজের ব্যক্তিগত তথ্য লক করে সুরক্ষিত রাখা যায় এই অ্যাপটির মাধ্যমে।

এমনকি ফোন সাইলেন্ট মোডে থাকলেও সেটিতে অ্যালার্ম বাজানো, মাইক্রোফোনে কথা রেকর্ড করা, ইনকামিং ও আউটগোয়িং কলের তালিকা দেখা- চোর ধরতে এরকম নানা সুবিধা রয়েছে অ্যাপটিতে। অ্যাপটির আরেকটি বিশেষত্ব হচ্ছে, এটি ফোনে লুকিয়ে রাখা যায়। তাই ফোনটিতে যে এই অ্যাপ রয়েছে, সেটা অন্যের অগোচরে থেকে যায়। প্লে স্টোরে এই অ্যাপটির রেটিং ৪.৪। তবে এই অ্যাপটি বিনা মূল্যের নয়। ব্যবহারের জন্য খরচ করতে হবে ৪.৯৯ ইউরো। অ্যাপটির লিংক: https://goo.gl/CjcBe।

এয়ারড্রয়েড: ফাইল ট্রান্সফার/ম্যানেজ
এয়ারড্রয়েড অ্যাপটির সাহায্যে কম্পিউটার, ল্যাপটপ ও ট্যাবলেট থেকে খুব সহজে অ্যান্ড্রয়েড ফোনে ফাইল ট্রান্সফার করা যাবে। প্লে স্টোরে এই অ্যাপটির রেটিং ৪.৫।

বিনা মূল্যে ডাউনলোড করা যাবে https://goo.gl/9LUHQ লিংক থেকে।

হোভার চ্যাট
প্লে স্টোরে অনেক ধরনের মেসেজিং অ্যাপ রয়েছে। তবে এই অ্যাপটি ভিন্ন ঘরানার। মোবাইলে সিনেমা দেখার সময় কিংবা অন্যান্য অ্যাপ ব্যবহারের সময়ও ‘হোভার চ্যাট’ নামক এই মেসেজিং অ্যাপটির মাধ্যমে চ্যাট করা যাবে। অন্যান্য মেসেজিং অ্যাপে চ্যাট করার সময় অন্য আর কিছু করা যায় না। কিন্তু হোভার চ্যাট এক্ষেত্রে অনেক এগিয়ে।

মোবাইলে কোনো কিছু পড়া বা দেখার সময়, সেগুলো বন্ধ না করেই এই অ্যাপটির মাধ্যমে চ্যাট করা যাবে। প্লে স্টোরে এই অ্যাপটির রেটিং ৪.১। বিনা মূল্যে ডাউনলোড করা যাবে https://goo.gl/qOKqlk লিংক থেকে।

কভার লক স্ক্রিন
আপনি হয়তো আপনার ফোনে বিভিন্ন অ্যাপস ব্যবহার করেন। কিন্তু সবগুলো তো আর নিয়মিত এবং সবসময় ব্যবহার করেন না। এমন কিছু অ্যাপস রয়েছে যেগুলো হয়তো আপনি বাসায় থাকাকালীন সময়ে বেশি ব্যবহার করেন, কিছু অ্যাপস অফিসে বেশি ব্যবহার করেন এবং কিছু অ্যাপস হয়তো গাড়িতে থাকাকালীন সময়ে বেশি ব্যবহার করে থাকেন।

আর বিভিন্ন সময়ের জন্য প্রয়োজনীয় অ্যাপসগুলো আপনার ফোনের স্ক্রিনে রেখে দেবে ‘কভার লক স্ক্রিন’ অ্যাপটি। স্মার্টফোনের স্ক্রিন লক থাকা অবস্থায়ও প্রয়োজনীয় অ্যাপসগুলো ডিসপ্লে থেকে সরাসরি ব্যবহার করা যাবে। পাশাপাশি বাসা, অফিস, গাড়ি কিংবা অন্যান্য সময়ের আলাদা ওয়ালপেপারের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় অ্যাপগুলো সহজেই দ্রুত ব্যবহারের জন্য ডিসপ্লেতে রেখে দেওয়া যাবে। প্লে স্টোরে এই অ্যাপটির রেটিং ৪.৪। বিনা মূল্যে ডাউনলোড করা যাবে https://goo.gl/A9CA3G লিংক থেকে।

লোকেল (লোকেশন)
কৃত্রিম বুদ্ধিমত্ত্বা প্রযুক্তির এই অ্যাপটি। তাই স্বাভাবিকভাবেই এটি বিনা মূল্যের নয়। অ্যাপটি ব্যবহার করতে চাইলে ব্যয় করতে হবে ৯.৯৯ ডলার।

ব্যবহারকারীর সুবিধার্থে অ্যাপটি ফোনের বেশ কিছু অপশন স্বয়ংক্রিয় চালু করতে পারে। যেমন আপনি হয়তো এমন জায়গায় আছেন, যেখানে ফোনের রিংটোন বেজে উঠলে, আপনি বিব্রত হতে পারেন, সেক্ষেত্রে এই অ্যাপটি ফোনকে সাইলেন্ট মোডে নিয়ে যাবে। লোকেশন অনুসারে এই অ্যাপটি স্বয়ংক্রিয়ভাবেই ফোনকে জেনারেল বা সাইলেন্ট অথবা ভাইব্রেশন মোডে নিয়ে যাবে। ফোনের চার্জ যখন শেষের দিকে, তখন স্বয়ংক্রিয়ভাবে ফোনের ব্রাইটনেস কমিয়ে চার্জ বাঁচাবে অ্যাপটি। এরকম আরো বিভিন্ন স্বয়ংক্রিয় সুবিধার ফিচার রয়েছে অ্যাপটিতে। প্লে স্টোরে এই অ্যাপটির রেটিং ৪.৩। অ্যাপটির লিংক: https://goo.gl/1giBiv ।

স্কাইম্যাপ
স্কাইম্যাপ অ্যাপটি টেক জায়ান্ট প্রতিষ্ঠান গুগলের তৈরি। এই অ্যাপটির সাহায্যে আপনি মহাকাশের গ্রহ-তারা চিনতে পারবেন। মহাকাশের তারা/নক্ষত্র সবকিছুর অবস্থান আপনার বর্তমান লোকেশন অনুযায়ী কোথায় আছে, সেটা দেখিয়ে দিতে পারে স্কাইম্যাপ অ্যাপটি।

প্লে স্টোরে এই অ্যাপটির রেটিং ৪.৫। বিনা মূল্যে ডাউনলোড করা যাবে https://goo.gl/QvnC0R লিংক থেকে।

লিংক বাবল ব্রাউজার
এটি আসলে একটি সময় সাশ্রয়ী ব্রাউজিং অ্যাপ। এবং ২০১৪ সালের অন্যতম সেরা একটি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ। বিভিন্ন ওয়েবসাইট বা সোশ্যাল মিডিয়ায় যখন আপনি একটি লিংক ক্লিক করবেন, তখন ব্যাকগ্রাউন্ডে সেই লিংকটি লোড হতে থাকবে, যখন পুরোপুরি লিংকটি লোড হবে, তখন সেটি আপনি আপনি ওপেন হবে।

প্লে স্টোরে এই অ্যাপটির রেটিং ৪.২। বিনা মূল্যে ডাউনলোড করা যাবে https://goo.gl/DD2IuV লিংক থেকে।

টাস্কার
স্বয়ংক্রিয় ফোন ব্যবস্থাপনার আরেকটি জনপ্রিয় অ্যাপ হচ্ছে টাস্কার। অ্যাপটিতে ২শ’রও বেশি বিল্ট-ইন প্লাগ-ইন রয়েছে। এই অ্যাপটির সাহায্যে মোবাইলের কোন ফাংশনটি কোন সময় বা কোনদিন ব্যবহার করবেন তা নির্দিষ্ট করে দেয়া যাবে।

সময়ানুযায়ী মোবাইলের নানা কাজ সম্পাদনের জন্য অন্যতম সেরা অ্যাপ এটি। তবে অ্যাপটি বিনা মূল্যের নয়। অ্যাপটির মূল্য ২.৯৯ ডলার। টাস্কার অ্যাপটি মিলবে https://goo.gl/49vCkM লিংকে।

ইউসিসিডব্লিউ-আল্টিমেট কাস্টম উইগেট
ফোনের ডিসপ্লেতে পছন্দমতো উইগেট সেট করার সুবিধা দেবে এই অ্যাপটি। আপনি কেবলমাত্র অনেকগুলো স্কিন থেকে নিজের পছন্দমতো স্কিনটি সেট করে নিন। এরপর পছন্দমতো উইগেট সেট করুন যেমন: টেক্সট, ইমেজ, ওয়েদার, ক্লক, ক্যালেন্ডার, ব্যাটারি ইনফো, মিসড কল, জিমেইলসহ আরো অনেক কিছু রয়েছে।

প্লে স্টোরে এই অ্যাপটির রেটিং ৩.৯। বিনা মূল্যে ডাউনলোড করা যাবে https://goo.gl/FTJTP9 লিংক থেকে।

আনক্লাউডেড-ক্লাউড ম্যানেজার
এটি হচ্ছে বেশ অভিনব সুবিধার ক্লাউড টুল। এই অ্যাপটির সাহয্যে আপনি আপনার বিভিন্ন ক্লাউড স্টোরেজ অ্যাকাউন্ট যেমন ড্রপবক্স, গুগল ড্রাইভ, ওয়ান ড্রাইভ, বক্স এবং মেগা- এইসবগুলোর তথ্য এবং ব্যবহার একটি প্লাটফর্ম থেকেই করতে পারবেন।

প্লে স্টোরে এই অ্যাপটির রেটিং ৪.৩। বিনা মূল্যে ডাউনলোড করা যাবে https://goo.gl/Xrn2p9 লিংক থেকে।

ড্রুপ কন্ট্যাক্টস অ্যান্ড ডায়ালার
এই অ্যাপটি বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় আপনার বিভিন্ন বন্ধুর ফোননম্বর একটি প্লাটফর্মেই প্রদর্শন করবে। ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ, স্কাইপে, হ্যাংআউট সহ বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ার আপনার বন্ধুদের নম্বরগুলো একত্রে দেখা যাবে অ্যাপটিতে এবং সহজেই নম্বরগুলোতে ডায়াল করা যাবে।

প্লে স্টোরে এই অ্যাপটির রেটিং ৪.৫। বিনা মূল্যে ডাউনলোড করা যাবে https://goo.gl/ymOZzR লিংক থেকে।

স্লাইডিং এক্সপ্লোরার
ফোনের ফোল্ডার ও ফাইল ব্যবস্থাপনার অন্যতম সেরা একটি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ এটি। এক্ষেত্রে নানা সুবিধা মিলবে এই অ্যাপটিতে। প্লে স্টোরে স্লাইডিং এক্সপ্লোরার অ্যাপটির রেটিং ৪.৩।

বিনা মূল্যে ডাউনলোড করা যাবে https://goo.gl/m7VdNZ লিংক থেকে।

তথ্যসূত্র: বিজনেস ইনসাইডার