মেইন ম্যেনু

আইফোন কিনতে কিডনি বিক্রি!

বাজারে এখন অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ছড়াছড়ি যা সহজেই আকৃষ্ট করছে তরুণ সমাজকে। কিন্তু সবার সামর্থ্য তো এক রকম নয়। তাই অনেকে এই আধুনিক প্রযুক্তি হাতে পেতে নানা রকম আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকে। সম্প্রতি চীনের দুই বন্ধু মিলে কিডনি বিক্রির পরিকল্পনা প্রায় চূড়ান্ত করে ফেলেছিল। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপের পর এ যাত্রায় বেঁচে গেছে দুই যু্বক।

চীনের জিয়াংসু প্রদেশের দুই যুবক এই কাণ্ড ঘটিয়েছিল। তারা নিজেদের মূল্যবান অঙ্গটি বিক্রি করতে চেয়েছিল অ্যাপেলের নতুন আইফোন কেনার টাকা জোগারের জন্য।

এদের একজনের নাম উই। তার অ্যাপলের সিক্সএস আইফোন কেনার খুব শখ হয়েছিল। কিন্তু শখ হলে কি, হাতে নেই পয়সা। তখন এ নিয়ে সে তার বন্ধু হুয়াংয়ের সঙ্গে আলাপ করে। তখন হুয়াং বলে,‘চল, আমরা দুজন নিজেদের একটি করে কিডনি বেঁচে দেই। এতে আইফোন কেনা হয়ে যাবে।’ পরামর্শটি মনে ধরে উই’য়েরও। এ নিয়ে তারা ইন্টারনেটে একটি কিডনি বিক্রির দালালের সঙ্গে আলাপ করে। ওই দালাল তাদের মেডিকেল পরীক্ষার জন্য নানজিংয়ের এক হাসপাতালে আসার অনুরোধ করেন। কিন্তু গত ১২ সেপ্টেম্বর তারা সেখানে গিয়ে দেখেন ওই দালাল নিজেই আসেননি।

এ ঘটনায় হুঁস হয় উইয়ের। সে তার বন্ধুকে বলে,‘চল বাড়ি যাই। কিডনি বেঁচে মোবাইল কিনতে হবে না ‘ কিন্তু বেপোরোয়া হুয়াং এতে রাজি ছিল না। সে কিডনি বেঁচার জন্য এক পায়ে খাড়া। বন্ধুকে আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত থেকে ফেরাতে শেষে পুলিশের আশ্রয় নেন উই। কিন্তু পুলিশ ঘটনাস্থলে আসার আগেই পালিয়ে যায় হুয়াং। এখনো তার খোঁজ মেলেনি।