মেইন ম্যেনু

আকিব জাভেদকে দুই দিন পাচ্ছেন মাশরাফিরা

বাংলাদেশের পেসারদের নিয়ে কাজ করতে সাতদিনের জন্য ঢাকায় এসেছেন পাকিস্তানের সাবেক পেসার আকিব জাভেদ। শুক্রবার বিকেলে সোয়া ৫টায় ঢাকায় পৌঁছান এ পাকিস্তানি। এক সপ্তাহের জন্য আসলেও তিনি কাজ করবেন ছয়দিন। বিশেষ এ ক্যাম্পের প্রথম চারদিন কাজ করবেন হাই পারফরমেন্স (এইচপি) ইউনিটের ক্যাম্পে থাকা পেসারদের নিয়ে। আর শেষ দুই দিন মাশরাফিদের সঙ্গে কাজ করবেন এ বিশেষজ্ঞ কোচ।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) গেম ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার নাজমুল আবেদিন ফাহিম বলেন, (শুক্রবার) বিকাল সোয়া ৫টায় ঢাকায় পৌঁছেছেন আকিব জাভেদ। সাত দিনের সফরে ছয়দিন কাজ করবেন তিনি। এর মধ্যে প্রথম চারদিন কাজ করবেন এইচপির পেসারদের নিয়ে। এরপর শেষ দুইদিন কাজ করবেন জাতীয় দলে জন্য ডাক পাওয়া পেসারদের সঙ্গে।’

শনিবার সকাল নয়টা থেকে শুরু হবে এ ক্যাম্পের কার্যক্রম। তবে সকালের প্রথমে পেসারদের সঙ্গে পরিচিত হবেন তিনি। এরপরই শুরু হবে মূল সেশন। এমনটাই জানিয়েছেন বিসিবির গেম ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার।

হিথ স্ট্রিকের বিদায়ের পর বোলিং কোচ হিসাবে বাংলাদেশের প্রথম পছন্দ ছিলেন পাকিস্তানের আকিব জাভেদ। কিন্তু পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) ফ্র্যাঞ্চাইজি লাহোর কালান্দার্সের ডিরেক্টর হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার কারণে বিসিবির প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন এ পাকিস্তানি। তবে স্বল্প মেয়াদে বাংলাদেশের পেসারদের নিয়ে কাজ করার জন্য আসেন তিনি।

উল্লেখ্য, এইচপি ক্যাম্পে মোট ১৬ জন পেসার রয়েছেন। আর বাংলাদেশ জাতীয় দলের কন্ডিশনিং ক্যাম্পে রয়েছেন নয়জন পেসার। এর মধ্যে মোস্তাফিজুর রহমানকে ছাড়া বাকি ২৪ জনকে নিয়ে কাজ করবেন আকিব জাভেদ।

জাতীয় দলের জন্য ডাক পাওয়া পেসারঃ
মাশরাফি বিন মর্তুজা, রুবেল হোসেন, তাসকিন আহমেদ, মোস্তাফিজুর রহমান, আল-আমিন হোসেন, মোহাম্মদ শহীদ, কামরুল ইসলাম রাব্বি, শফিউল ইসলাম ও মুক্তার আলী।

এইচপি ক্যাম্পের পেসারঃ
আব্দুল হালিম, রিফাত প্রধান, আবুল হোসেন, আবু জায়েদ চৌধুরী, শহিদুল ইসলাম, ইমরান আলী এনাম, মোহাম্মদ আজিম, আশিকুজ্জামান, মেহেদি হাসান রানা, শুভাশীষ রায়, নূর আলম সাদ্দাম, আবু হায়দার রনি, দেওয়ান সাব্বির আহমেদ, এবাদত হোসেন চৌধুরী, সাইফ উদ্দিন, আলাউদ্দিন বাবু ও আরিফুল হক।