মেইন ম্যেনু

আগামী বাজেট হবে ৩ লাখ ৪০ হাজার কোটি টাকার

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, ‘আমাদের গত অর্থবছরের বাজেট ছিল ৩ লাখ কোটি টাকার মতো। এবার আরো ৪০ হাজার কোটি টাকা বাড়িয়ে আগামী বাজেটের সম্ভাব্য আকার হতে পারে ৩ লাখ ৪০ হাজার কোটি টাকার।’

মঙ্গলবার দুপুরে সিলেট মহানগরীর রিকাবীবাজারস্থ কবি নজরুল ইসলাম অডিটোরিয়ামে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের কর্মীসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী আরো বলেন, ‘২০০৯ সালে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত করা, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণ করার কথা ছিল। ২০১৪ সালের নির্বাচনেও এরকম ইশতেহার ছিল আওয়ামী লীগের। তবে ওই নির্বাচনে প্রতিযোগিতা না থাকায় তা তেমন আলোচিত হয়নি। ওই সময় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া জ্বালাও-পোড়াওয়ের রাজনীতি করেছেন। কিন্তু তারপরও বিশ্বব্যাংকের স্বল্পোন্নত ৪৮টি দেশের মধ্যে শিল্প, কৃষি, শিক্ষা ও মানব উন্নয়ন সূচকে নেতৃত্ব স্থানে রয়েছে বাংলাদেশ।’

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘২০১৮ সালে জাতিসংঘের বিশেষ কমিটির সভায় বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশ হিসেবে স্বীকৃতি পাবে বলে আমার ধারণা। এর মধ্যে যদি বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত হয়, তবে ২০২১ সালের মধ্যে বিভিন্ন ক্ষেত্রে যেসব সহযোগিতা পাচ্ছি, তা অনেকটাই কমে আসবে।’

কর্মিসভায় সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রাক্তন মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের সভাপতিত্বে এবং জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও প্রাক্তন সংসদ সদস্য শফিকুর রহমান চৌধুরীর পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমান, সহসভাপতি আশফাক আহমদ, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ, অর্থমন্ত্রীর ছোট ভাই ও জাতিসংঘস্থ বাংলাদেশ মিশনের প্রাক্তন স্থায়ী প্রতিনিধি এ কে মোমেন প্রমুখ।



« (পূর্বের সংবাদ)