মেইন ম্যেনু

“আগের স্বামীর সাথে মেলামেশা করত তাই ডিভোর্স দিয়েছি”

আরফিন রুমি সংগীত জগতে খুব অল্প সময় উঠে আসা এক তরুণ কন্ঠশিল্পী। বার বার আলোচনা আর সমালোচনা যার পিছু ছাড়ে না। আরফিন রুমি ২০০৮ সালে প্রথম বারের মতো পারিবারিত ভাবে বিয়ে করেন লামিয়া ইসলাম অনন্যাকে। সংসার জীবন চলতে থাকে ভালো ভাবেই। তবে হঠাৎ করে আরফিন তার সুখের সংসারে ভেঙ্গে ২০১৩সালে ২য় বারের মতো বিয়ে করেন আমেরিকায় বসবাসরত কামরুন্নেসা নামে তরুনীকে। তবে ২য় বিয়ে করার আগে আরফিন রুমি প্রথম স্ত্রীকে পারিবারিক ভাবে ডিভোর্স দেন।

অন্যদিকে ২য় স্ত্রী কামরুন্নেসা পুত্র আয়ানসহ গত সাত মাস ধরে অবস্থান করছেন আমেরিকায়। সেখান থেকে গত মঙ্গলবার (৯ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশে আসার উদ্দেশ্যে আমেরিকা থেকে রওয়ানা হয়েছেন। এদিকে মঙ্গলবার রাতেই নিরাপত্তা অনুভব না করায় রুমির পক্ষ থেকে মোহাম্মদপুর থানায় একটি জিডিও করেছেন তার মা।

আনুষ্ঠানিকভাবে ডিভোর্সের বিষয়টিও থানায় অবহিত করা হয়। গত মঙ্গলবার রুমির আইনজীবি আবদুর রহিম কামরুন্নেসার বাবাকে ফোন করে ডিভোর্স লেটার পাঠানোর বিষয়টি সরাসরি অবগত করেন। মানসিক নির্যাতন, আগের স্বামীর সঙ্গে মেলামেশা, বেপরোয়া চলাফেরা ও কাউকে তোয়াক্কা না করাসহ বিভিন্ন কারণে কামরুন্নেসাকে ডিভোর্স দিয়েছেন বলে জানান আরফিন রুমি।

এবার ২য় বিয়ে টিকল না আরফিন রুমির কিন্তু কি কারণে বার বার আরফিন রুমি’র ভাগ্যে ঘটছে বউ বদলানোর খেলা।

কেমন আছেন?
আরফিন রুমি: আল্লাহর মেহেরবাণী আর আপনাদের ভালোবাসায় অনেক ভালো আছি।

আপনার বর্তমান ব্যস্ততা কি নিয়ে?
আরফিন রুমি: আমি গানের নায়ক। তাই আমার ব্যস্ততা গান নিয়েই। এর বাইরে নিজের কাজ থাকে। সব মিলিয়ে গানের কাজ নিয়ে আমি একটু ব্যস্ত।

আরফিন রুমি মানে এক সময় সাড়া জাগানো কন্ঠশিল্পী এবং আপনার রয়েছে অনেক নাম ডাক এটাকে আপনি কিভাবে দেখেন?
আরফিন রুমি: আসলে আমি মনে করি সব কিছুই উপর আল্লাহর দান। আর আমার শ্রোতা যারা গান শুনেন তাদের ভালোবাসায় আমি আজকের আরফিন রুমি। অবশ্যই আমার কাছে এটা বড় পাওয়া। আমি আপনাদের কাছে চির কৃতজ্ঞ থাকব।

আরফিন রুমি মানে আলোচনা ও সমালোচনার ব্যক্তি সেটা কেন?
আরফিন রুমি: একটা মানুষ সবার কাছে ভালো হতে পারে না। আর হয়তো মানুষ ভালোবাসে আমাকে নিয়ে আলোচনা ও সমালোচনা করতে।

আমরা জানি আপনি ২য় স্ত্রীকেও ডিভোর্স দিয়েছেন। যদিও এটা আপনার পারিবারিক ব্যাপার। তারপরও আপনার ভক্তদের হয়ে জানতে চাই যদি কিছু বলতেন?
আরফিন রুমি: এটা নিয়ে বলা না বলা সমান কথা। তারপরও বলতে হয়, আমি তাকে ভালোবেসেই বিয়ে করেছিলাম কিন্তু সে আমার ভালোবাসার মূল্য রাখেনি। আমি বার বার তাকে বোঝোনোর চেষ্টা করলেও সে বুঝেনি। আর বেশি কিছু আমি বলতে চাই না।

আপনি ঠিক কি বোঝাতে চাইতেন ২য় স্ত্রী কামরুনন্নেসাকে?
আরফিন রুমি: সে আমাকে মানুষিকভাবে চাপে রাখত। আজ এখানে কাল ওখানে চলাফেরা করত। আমি নিষেধ করলেও সে তোয়াক্কা করত না। আমি যে স্বামী সেটা মানত না। আর সব থেকে বড় বিষয় সে আগের স্বামীর সাথে মেলামেশা করত।

তাহলে কি আমরা ধরে নিব আরফিন রুমি ৩য় বারের মতো বিয়ে করবেন?
আরফিন রুমি: একটু হেঁসে… না এখন ঠিক তেমন বলা যাচ্ছে না।

আমরা জানি ১ম ও ২য় স্ত্রীর কাছে আপনার দুটি সন্তান রয়েছে। তাদের নিয়ে কিছু বলবেন?
আরফিন রুমি: আমার সন্তান আমারই। আমি যতটুকু পারি দেখার চেষ্টা করি। আর আমার সন্তান যেখানে ভালো থাকবে আমি সেখানেই তাকে রাখতে চাই।

গান নিয়ে আপনার আগামী পরিকল্পনা কি?
আরফিন রুমি: আমি যতদিন বাঁচব গান নিয়ে থাকব। গান আমাকে আরফিন রুমি বানিয়েছে। তাই গান নিয়ে আছি এবং আগামীতে থাকব।

সর্বশেষ আপনার শ্রোতা ও বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডটকম’র পাঠকদের উদ্দেশ্যে কি বলবেন?
আরফিন রুমি: সবাই ভালো থাকবেন আর আমার জন্য দোয়া করবেন। চলার পথে আমার ভুল আছে, থাকবে, সেটাকে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন।বিডি২৪লাইভ