মেইন ম্যেনু

আঙুল ফুটানো ভালো নাকি খারাপ?

জীবনে কখনো আঙুল ফুটাননি, এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। অনেকে ছোটবেলা থেকেই এটির সঙ্গে পরিচিত। কেননা বাসায় বড়রা অনেক সময় মজা করে কিছুটা ব্যথা দেওয়ার জন্য বাচ্চাদের আঙুল ফুটিয়ে দেয়।

আর বড় হয়ে তো সকলেই নিজে নিজেই আঙুল ‍ফুটায় নিজের ভালো লাগার জন্য। অনেকেরই এটা মাঝে মধ্যের একটা অভ্যাস।

কিন্তু জনসম্মুখে আঙুল ফুটানোর বিষয়টি ভদ্রতা বিরোধী। কেননা আঙুল ফুটানোর মটমট শব্দ অন্যের কাছে বিরক্তিকর। তাছাড়া আঙুল ফুটালে এর শারীরিক ক্ষতি রয়েছে বলেও প্রচলিত রয়েছে। যেমন আঙুলের জয়েন্টের ক্ষতি হতে পারে। ফলে শুভানুধ্যায়ীরা আঙুল ফুটাতে বারণ করে থাকে।

আসলেই কী আঙুল ফুটানোর শারীরিক ক্ষতি রয়েছে? সাম্প্রতিক একটি গবেষণার ফলাফল কিন্তু প্রচলিত ধারণাটির বিপক্ষে অবস্থান করেছে। উত্তর আমেরিকার রেডিওলজিক্যাল সোসাইটির গবেষকরা এ বিষয়ে একটি গবেষণা পরিচালনা করেছেন ৪০ জন মানুষের ওপর, যারা মাঝে-মধ্যেই আঙুল ফুটিয়ে থাকেন।

আঙুল ফুটানোর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া যেন কোনো ভাবেই নজর এড়িয়ে না যায়, সেই জন্য গবেষণায় ব্যবহার করা হয় আল্ট্রাসাউন্ড প্রযুক্তি। এই গবেষণার ফলাফলেই বলা হয়েছে, আঙুল ফুটানো কোনো ক্ষতিসাধন করে না হাতে।

ক্ষতি না হওয়ার বিষয় গবেষকরা নিশ্চিত হতে পারলেও, আঙুল ফুটালে শরীরের কোনো উপকার কী হয়? এর উত্তর জানাতে পারেননি গবেষকরা। ঠিক কী উপকার হয় আঙুল ফুটালে বা আসলেই হয় কী না- এ বিষয়ে আরো বিস্তারিত গবেষণা শুরু করেছেন গবেষকরা।