মেইন ম্যেনু

আচমকা বাড়ির ওপর নেমে পড়ল বিমান

আচমকা নেমে পড়ল আস্ত একটি উড়োজাহাজ। একটা বাড়ির ওপর। তবে বেঁচে গেছেন সবাই—পাইলট, চারজন স্কাইডাইভার এবং বাড়ির দুই বাসিন্দা। এ ঘটনা যুক্তরাষ্ট্রের অ্যারিজোনা অঙ্গরাজ্যের ফিনিক্স শহরের গিলবার্ট এলাকার।

স্থানীয় ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা বলেন, উড়োজাহাজটি ওই বাড়ির ওপর বিধ্বস্ত হওয়ার আগেই আরোহীরা সবাই ঝাঁপ দিয়ে আত্মরক্ষা করেন। তখন বাড়ির ভেতরে ছিলেন দুজন। তবে তাঁরা অক্ষত রয়েছেন।

বিমানটির পাইলট হাসপাতালে যেতে বাধ্য হয়েছেন। তার শরীরের কয়েকটি অংশে পোড়া ক্ষত, সেগুলোর চিকিৎসা নিয়েছেন। তবে আকাশে ঝাঁপ দিতে যাওয়া (স্কাইডাইভার) দুই ব্যক্তির কেউই আহত হননি। যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধান মেলা বা কনস্টিটিউশন ফেয়ার উপলক্ষে তাদের দুজনকে নিয়ে উড়োজাহাজটি রওনা হয়েছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের সর্বোচ্চ আইন এই সংবিধান। দিবসটি পালনের জন্য সামরিক বিমানের নানা রকম মহড়া, স্কাইডাইভিং প্রভৃতি আয়োজনের মাধ্যমে অ্যারিজোনার বীরসেনাদের প্রতি সম্মান দেখানো হয়।

ঘটনার পর গিলবার্টের দমকল বিভাগ দ্রুত তৎপর হয়। তারা গতকাল রোববার দফায় দফায় টুইটার বার্তা দিয়ে পরিস্থিতি সম্পর্কে জানায়। প্রথম দফায় তাদের টুইটার বার্তা ছিল এ রকম: ‘বাড়িতে আগুন: উড়োজাহাজটি ওই বাড়ির ওপর পড়ে বিধ্বস্ত হয়েছে।’

পরে তারা টুইট করে: ‘বিমান দুর্ঘটনার হালনাগাদ তথ্য: বাড়ির বাসিন্দারা নিরাপদে আছেন। পাইলট প্যারাস্যুট নিয়েই উড়োজাহাজ থেকে ঝাঁপ দিয়েছেন। অবতরণের পর দেখা যায়, শরীরের এখানে-সেখানে পুড়েছে তার।’ বিবিসি