মেইন ম্যেনু

আজব ফ্যাশনের আসামি, বিভ্রান্ত পুলিশ!

কেভিনের যে ছবি পুলিশের হাতে আসে, তা সত্যিই রোমাঞ্চকর। কেভিন কেন এমন করলেন, পুলিশের একটাই জিজ্ঞাসা। অপরাধীর খাতায় নাম তোলার জন্য ছবি তোলানো সব দেশের পুলিশেরই একান্ত কর্তব্য। সেই কাজটি সমাধা করতে গিয়েই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মায়ামির পুলিশ কর্তৃপক্ষ রীতিমতো ঝামেলায় পড়েছে সম্প্রতি।

৫৮ বছর বয়সি কেভিন গিবসনকে মায়ামির পুলিশ মারিজুয়ানা রাখার অভিযোগে গ্রেফতার করে। তার পরে তার ছবি তোলানোর জন্য তোড়জোড় করে। কেভিনের যে ছবি পুলিশের হাতে আসে, তা সত্যিই রোমাঞ্চকর।

কেভিনের মুখের একদিকে লাম্বা দাড়ির বাহার। আর অন্যদিক পুরোই ফাঁকা। তার উপরে তার চুলের বাহারও বেশ অদ্ভুত। সাদা দাড়ির সঙ্গে কালো ড্রেডলক এমন বৈপরীত্ব তৈরি করেছে যে, তার ছবিটিই হয়ে উঠেছে এই মুহূর্তে মায়ামি পুলিশের কাছে আলোচনার বিষয়।

কেভিন কি তার দাড়ি কামানো অর্ধসমাপ্ত রেখে ছবি তুলতে এসেছিলেন? নাকি তার ফ্যাশন-স্টেটমেন্টই এই রকমের? উত্তর কেভিনই দিতে পারেন একমাত্র। কিন্তু, তিনি তো জেলের দিকে পা বাড়িয়ে বসে রয়েছেন!