মেইন ম্যেনু

আজ নিজের সিম নিবন্ধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে চলমান সিম নিবন্ধন কার্যক্রমের সময়সীমা ৩০ এপ্রিলের মধ্যেই সীমাবদ্ধ রাখার ইঙ্গিত দিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। তিনি বলেছেন, ‘আমরা কিন্তু বলে আসছি ৩০ এপ্রিল লাস্ট ডেট (শেষ দিন)। এরপর ৩ ঘণ্টা বন্দ থাকছেই। এ বিষয়টি আমরা ছাড় দেব না।’

বুধবার রাতে মুঠোফোনে এ তথ্য জানান প্রতিমন্ত্রী।

তারানা হালিম বলেন, ‘আমরা নভেম্বর থেকে যখন বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধন শুরু করেছি এখন পর্যন্ত বলে আসছি আপনারা যারযার সিম নিবন্ধন করে নিন, ৩০ এপ্রিল কিন্তু শেষ দিন। চাপ পড়বে শেষের দিকে, কাজে দেরি করবেন না।’

তিনি বলেন, ‘আমরা কোনোরকমভাবেই এটা বলিনি যে, সময় বর্ধিত করা হবে। আমরা বলেছি যে, ৩০ এপ্রিল লাস্ট ডেট (শেষ দিন)। এরপর বন্ধ হয়ে যাবে। এর মধ্যে সবার করে নেওয়াটাই দায়িত্ব। এখনও যারা করেননি সেকেন্ডবার (দ্বিতীয়বার) বন্ধ থাকার পর সময় পাওয়া যাবে। এই সময়ের মধ্যেই তারা পুনঃনিবন্ধন করে নিতে পারেন।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘ধরুন, আমি ১ তারিখে ৩ ঘণ্টা বন্ধ করলাম। এরপরে ৪-৫ দিন পরে যখন ৫ ঘণ্টায় উন্নিত করবো, এ ৪-৫ দিন কিন্তু তাদের হাতে সময় আছে। এভাবে যখন ১২ ঘণ্টায় যাচ্ছি, তখন ফাইনালি এটা বন্ধ করে দেব।’

এদিকে আজ বৃহস্পতিবারের মধ্যেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে নিজের সিম নিবন্ধন করবেন বলে জানিয়েছেন তারানা হালিম।

এ প্রতিবেদকের এক প্রশ্নের জবাবে তারানা হালিম বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নিজেই আমাদের বলেছেন যে, সাধারন নাগরিকের মতই আমারটা আমি নিজেই করবো। আমারটা প্রচারের দরকার নেই।’

আরও একজন গুরুত্বপূর্ন ব্যক্তিও প্রচার না করে বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে নিজের সিম নিবন্ধন করেছেন জানিয়ে তারানা হালিম বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এতদিনে করে ফেলতেন। আমি আসলে রংপুরে চলে আসার জন্য দেরি হয়েছে। আমি আশা করছি, কালকের মধ্যেই উনি করে ফেলবেন।’