মেইন ম্যেনু

আজ বাংলাদেশ ক্রিকেটের বিস্ময়বালকের জন্মদিন

বাংলাদেশ ক্রিকেটের বিস্ময়বালক মোহাম্মদ আশরাফুল। ২০০১ সালের ৬ সেপ্টেম্বর শ্রীলংকায় স্বাগতিকদের বিপক্ষ সবচেয়ে কম বয়সে টেস্ট সেঞ্চুরি করে আলোড়ন সৃষ্টি করেছিলেন। এক সময় তিনিই ছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের বড় বিজ্ঞাপন। তার ব্যাট হাসলে, হেসেছে বাংলাদেশ। ব্যাটিংয়ে ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে না পারলেও অনেক জয়ে ছিল তার গৌরবজনক অবদান। এই ক্রিকেট তারকার আজ ৩১তম জন্মদিন। ১৯৮৪ সালের এই দিনে ঢাকায় জন্ম নেন আশরাফুল।

এবার জন্মদিনের আনন্দ অন্য বছরের তুলনায় অনেকটাই ফিকে হয়ে এসেছে। বাংলাদেশের লাখো তরুণের ব্যাটিং আদর্শ আশরাফুল এখন ম্যাচ ফিক্সিংয়ের দায়ে নিষিদ্ধ। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) দ্বিতীয় আসরে দুটি ম্যাচে স্পট ফিক্সিংয়ে জড়িয়ে যায় তার নাম তিনি। তাকে আট বছরের জন্যে নিষিদ্ধ করা হয়। একই সঙ্গে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

২০০১ সালে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে জড়ান আশরাফুল। এরপর দেশের হয়ে ৬১টি টেস্ট ও ১৭৭টি ওয়ানডে ও ২৩টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন তিনি। আশরাফুল টেস্টে ৬টি শতক ও ৮টি অর্ধশতকসহ ২৭৩৭, ওয়ানডেতে ৩টি শতক ও ২০টি অর্ধশতকসহ ৩৪৬৮ এবং ২৩টি টি-টোয়েন্টিতে ২টি অর্ধশতকসহ ৪৫০ রান করেন। এ ছাড়া, টেস্টে ২১, ওয়ানডেতে ১৮ এবং টি-টোয়েন্টিতে ৮টি উইকেট পেয়েছেন আশরাফুল।

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান এবং সাবেক অধিনায়ক তিনি। তার ব্যাটিং জাদুতে বাংলাদেশ দল হারিয়েছিল ক্রিকেটের পরাক্রমশালী শক্তি অস্ট্রেলিয়াকে। বাংলাদেশের অনেক জয়ে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন আশরাফুল। একসময় তাকে ভারতের লিটল মাষ্টার শচীন টেন্ডুলকারের সাথে তুলনা করা হতো। ডানহাতে ব্যাটিং এবং লেগ ব্রেক বোলিং করেন থাকেন আশরাফুল।