মেইন ম্যেনু

আত্মীয়র কাছ থেকে পাওয়া বাড়িতে মিলল সোনার পাহাড়!

আত্মীয়ের কাছ থেকে উত্তরাধিকারসূত্রে বিশাল এক বাড়ি পাওয়া মন্দ নয়। কিন্তু ওই বাড়ির ভেতরে আবার যদি গুপ্তধনের সন্ধান মেলে, তাহলে কি ঘটবে?

ফ্রান্সে ঘটেছে এমনই ঘটনা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই ফ্রেঞ্চ ভদ্রলোক আত্মীয়র কাছ থেকে পাওয়া বাড়ির মধ্যে ১০০ কেজি সোনার কয়েন পেয়েছেন। ওগুলো লুকানো অবস্থায় ছিল আসবাবপত্রের মধ্যে। যে আত্মীয়র কাছ থেকে বাড়িটি পেয়েছেন, তার পরিবারের কেউ আর বেঁচে নেই।

এটা যেন সম্পদের পাহাড়! বাথরুমে রাখা একটি চেয়ারের নিচে লাগানো ছিল একটি টিনের বাক্স। সেই বাক্সভর্তি সোনার ঝকঝকে কয়েনগুলো থরে থরে সাজানো ছিল।

ওই বাড়ির আবসবাবগুলো বিক্রি করতে চান নতুন মালিক। তার দাম নির্ধারণ করতে গিয়েছিলেন নিকোলাস। জানান, ওই বাড়ির আসবাবগুলো সরানোর কারণেই বেরিয়ে এসেছে কয়েনগুলো। চেয়ারের নিচে ছাড়াও হুইস্কির একটি বাক্সেও স্বর্ণের পয়সা খুঁজে পান নতুন মালিক। এর মধ্যে রয়েছে ৫ হাজার পিস সোনার কয়েন, ১২ কেজি ওজনের সোনার বার এবং ১ কেজি ওজনের ৩৭টি সোনার পাত।

একটি সার্টিফিকেটও মিলেছে। তাতে বলা আছে, এই সম্পদ বৈধভাবে কেনা হয়েছে ১৯৫০ এবং ৬০ এর দশকে। অবশ্য উত্তরাধিকারসূত্র পাওয়া সম্পদের ৪৫ শতাংশ ট্যাক্স দিতে হবে ভদ্রলোককে, জানায় স্থানীয় পত্রিকা লা ডিপেচে।
সূত্র : মিরর