মেইন ম্যেনু

আত্রাইয়ে ৪৬ টি মন্ডপে চলছে শারদীয় দুর্গপূজার প্রস্ততি

প্রতি বছর অশ্বরের বিনাশ কল্পে মা দেবী দূর্গা এই ধরাধামে আবির্ভুত হয়। তাই সনাতন ধর্মাবলম্বীরা মনে করেন, সমাজ থেকে অন্যায় অবিচার গ্নানি দূর করার জন্যই এই পূজার আয়োজন ।

এই উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে সারাদেশের ন্যায় নওগাঁর আত্রাইয়ে শুরু হতে যাচ্ছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবাচাইতে বড় উৎসব দুর্গা পুজা। মা দেবী দুর্গাকে বরণ করতে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা এখন ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। এর সাথে সাথে ব্যস্ত সময় পার করছেন মৃৎ শিল্পীরা।

মায়ের জন্য তাদের এখন শুধু অক্ষেকার পালা । এরই সুবাদে ঘরে ঘরে চলছে আলোকসজ্জাসহ আনন্দ উৎসব ও পুজার প্রস্ততি । আর কিছু দিন পর থেকে শুরু হবে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব শারদীয় দুর্গাপুজা।

ইতি মধ্যে উপজেলার বিভিন্ন দুর্গা মন্দির ঘুরে দেখা যায়, শ্বারদীয় দুর্গাপুজার প্রস্ততি মুলক কাজ প্রায় শেষের দিকে । উপজেলা পুজা উদযাপন কমিটির তথ্যমতে এবার ৪৩ টি মন্ডবে শারদীয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। এ বিষয়ে ভানীপুর-মির্জাপুর চৌধুরী বাড়ী সর্বজনীন দুর্গা মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক অভিজিৎ চৌধুরীর সাথে কথা বললে তিনি জানান, বর্তমান সরকার তাদের সার্বিকভাবে সহ যোগীতার পাশাপাশি আর্থিক ভাবে ও সহযোগীতা করে আসছে।

১নং শাহাগোলা ইউনিয়ন পুজা উদযাপন কমিটির সভাপতি শ্রী কালীদাশ মালাকার বলেন, মনের মন্দিরে মা দুর্গাকে স্মরণীয় বরনীয় করে রাখতে স্ব-স্ব পূজা উৎযাপন কমিটি বিভিন্ন স্থান থেকে ভাষ্কর নিয়ে এসে মন্ডপ তৈরি করছেন বলে জানান। তিনি আরও জানান, শান্তি শৃংখলা ভালো থাকায় সবাই স্বচ্ছন্দে শারদীয় দুর্গাপূজা উৎসব পালন করবেন এটাই প্রত্যাশা।

আত্রাই উপজেলা পুজা উদযাপন কমিটির সভাপতি শ্রী মধুসুধন প্রামানিক জানান, এবার আমাদের উপজেলায় মোট ৪৬টি পুজামন্ডপে দুর্গা পুজা অনুষ্ঠিত হবে।

পুজাকে সামনে রেখে সম্ভবনার কথা জানালেন আত্রাই থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল্লাহ আল-মাসউদ চৌধুরী তিনি জানান, অন্যান্য বছরের চাইতে এবারের পূজায় নিরাপত্তার জোরালো প্রস্ততি গ্রহন করা হয়েছে। আশাকরি কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটবেনা এবারের পুজায়। তবে এ জন্য তিনি সকলের সহযোগীতা কামনা করেন।