মেইন ম্যেনু

আদা চায়ের ৭টি বিস্ময়কর স্বাস্থ্যগুণ!

আদাকে সুপার ফুড বলা হয়। সাধারণ সর্দি কাশি থেকে শুরু করে স্ট্রোকের মত মারাত্নক রোগের ঝুঁকি কমিয়ে থাকে এই আদা। অনেকেই আদা চা খেতে পছন্দ করেন। বিশেষ করে ঠান্ডার সময় হলে তো কথাই নেই। কিন্তু আপনি জানেন কি এক কাপ আদা চা আপনার স্বাস্থ্যের কি পরিবর্তন আনতে পারে?

১। বমি বমিভাব দূর করা

অনেকের ভ্রমনের সময় বমি হওয়ার প্রবণতা থাকে। ভ্রমণের আগে এক কাপ আদা চা খেয়ে নিন এটি আপনার বমি বমিভাব প্রতিরোধ করবে। এমনকি মোশন সিকনেসও রোধ করে থাকে আদা চা।

২। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি

নিয়মিত আদা চা পান করলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। আদা চায়ের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে ইনফেকশনের সাথে লড়াই করতে সাহায্য করে।

৩। পাকস্থলি শান্ত করতে

অনেক সময় বিভিন্ন খাবার খাওয়ার কারণে পাকস্থলি উত্তেজিত হয়ে পরে। হজমে সমস্যা, পেট ব্যথা হয়ে থাকে। আদা চা খাবার হজমে সাহায্য করে থাকে।University of Maryland Medical Center এর মতে এটি সকালবেলার আলস্য বা বমি বমি ভাব যেটাকে মর্নিং সিকনেস বলা হয় তা দূর করে দেয়। তবে এটি সবার ক্ষেত্রে কাজ নাও করতে পারে।

৪। স্ট্রোকের ঝুঁকি হ্রাস

প্রতিদিন এক কাপ আদা চা আপনার স্ট্রোকের ঝুঁকি হ্রাস করে দেয় অনেকখানি। আদা চর্বি কাটতে সাহায্য করে যা ধমনীর ব্লক হওয়া রোধ করে থাকে।

৫। ফুসফুস ক্যান্সার রোধ

আদা ৭৬% ফুসফুস ক্যান্সার জীবাণু ধ্বংস করে থাকে। গবষোণায় দেখা গেছে আদার মেটাবলিক উপাদান ক্যান্সার জীবাণু প্রতিরোধ করে থাকে। আদার নির্যাস ব্রেস্ট ক্যান্সার, কোলন ক্যান্সার, প্রস্টেট ক্যান্সার, অগ্ন্যাশয়ের ক্যান্সার প্রতিরোধ করে থাকে।

৬। রক্ত চলাচল বৃদ্ধি

আদা চায়ের ভিটামিন, মিনারেল, অ্যামিনো অ্যাসিড দেহে রক্ত চলাচল সচল রাখে। যা কার্ডিওভাসকুলার সমস্যার ঝুঁকি রোধ করে দেয়।

৭। শ্বাসযন্ত্রের সমস্যা রোধ

আদা চা সাধারণত ঠান্ডাজনিত সমস্যা উপশম করে থাকে। এটি ঠান্ডাজনিত অ্যালার্জি দূর করে শ্বাসযন্ত্রের সমস্যা প্রতিরোধ করে।

প্রতিদিন পান করুন এক কাপ আদা চা আর দেখুন এর ম্যাজিক।