মেইন ম্যেনু

প্রজ্ঞাপন জারি

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল এখন ১টি

আর্ন্তজাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল দুটি থেকে কমিয়ে একটিতে নামিয়ে এনেছে সরকার। মুক্তিযুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধ বিচারের জন্য গঠিত দুটি আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল পুনঃগঠন করল সরকার। এখন একটি ট্রাইবুনাল সক্রিয় থাকবে। অপরটি সরকার সিদ্ধান্ত না নেয়া পর্যন্ত ‘অগঠিত’ অবস্থায় থাকবে।

মঙ্গলবার বিকেলে আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আইন ও বিচার বিভাগের সচিব আবু সালেহ শেখ মোঃ জহিরুল হক সাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে সরকারের এই সিদ্ধান্তের কথা জানা গেছে।

প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনাল-১ ও ২ এর বিচারাধীন মামলার সংখ্যা বিবেচনায় উক্ত ট্রাইবুনাল দুইটিকে একীভূত করে একটি ট্রাইবুনাল গঠন আবশ্যক। সে লক্ষ্যে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনাল-১ এ কর্মরত সদস্য বিচারপতি আনোয়ারুল হককে চেয়ারম্যান, আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনাল-২ এ কর্মরত সদস্য বিচারপতি জনাব শাহিনুর ইসলামকে সদস্য এবং বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের পরামর্শক্রমে বিচারপতি মোহাম্মদ সোহরাওয়ার্দীকে সদস্য করে একটি ট্রাইবুনাল গঠন করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।’

প্রজ্ঞাপনে অপর ট্রাইবুনালটি পরবর্তী আদেশ না দেয়া পর্যন্ত ‘অগঠিত’ অবস্থায় থাকবে বলে জানানো হয়েছে।

‘আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনাল-১ এর চেয়ারম্যান বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম, অপরাধ ট্রাইবুনাল-১ এর সদস্য বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন, অপরাধ ট্রাইবুনাল-২ এর সদস্য বিচারপতি মুজিবুর রহমান মিয়া সুপ্রীম কোর্টে প্রত্যাবর্তন করবেন।’

প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়, ‘পরবর্তী আদেশ না দেয়া পর্যন্ত ট্রাইবুনাল হতে হাইকোর্ট বিভাগে প্রত্যাবর্তনকারী মাননীয় বিচারপতিগণের অনুকূলে ট্রাইব্যুনালে কর্মরত থাকাকালে প্রদত্ত সকল নিরাপত্তা সুবিধাসহ আনুষাঙ্গিক অন্যান্য সুবিধাদি অব্যাহত থাকবে।’

প্রজ্ঞাপনে আরও উল্লেখ জরা হয়, ‘পরবর্তী আদেশ না দেয়া পর্যন্ত অপরাধ ট্রাইবুনাল-১ ও ২ এর প্রশাসনিক ও বিচার সংক্রান্ত সকল বিষয়াদি পুনঃগঠিত আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনাল কর্তৃক সম্পন্ন হবে।’