মেইন ম্যেনু

আন্তর্জাতিক মিডিয়ায় অনন্ত জলিলকে নিয়ে হৈ চৈ

হৈ চৈ ফেলে দেয়াই অনন্ত জলিলের কাজ। যখন যেটা করেন সেটাতেই আলোচিত হন ঢাকাই ছবির ব্যবসা সফল এই নায়ক। তবে অতীতের অনেক কর্মকাণ্ড দিয়ে দেশ মাতালেও এই প্রথমবার তিনি কাঁপিয়ে দিলেন আন্তর্জাতিক মিডিয়াও।

সম্প্রতি তিনি ঘোষণা দিয়েছেন আগামী এক বছর নিজেকে ইসলামকেন্দ্রিক কার্যক্রমের সঙ্গে জগিত রাখবেন। তিনি তাবলিগ জামায়াতে যোগ দিয়েছেন। আর এই ঘোষণাই তাকে রাতারাতি আন্তর্জাতিক মিডিয়ার আলোচ্য ব্যক্তিতে পরিণত করলো।

সবাইকে ইসলামের ছায়াতলে শান্তি খুঁজে নিতে দাওয়াত করছেন অনন্ত। হঠাৎ করে সব ছেড়ে দিয়ে ধর্মকর্মে মন দেয়া একজন সুপারস্টার হিসেবে অনন্ত জলিলের কর্মকাণ্ড নিয়ে ফলাও করে সংবাদ পরিবেশন করেছে এএফপি, দ্য ডেইলি মেইল, আরব নিউজ, ইন্ডিয়ান নিউজসহ বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম। পাশাপাশি এতে তুলে ধরা হয়, বাংলাদেশের আলোচিত মডেল নাজনীন আক্তার হ্যাপীর ইসলামের প্রতি ঝুঁকে পড়ার বিষয়টিও!

সংবাদমাধ্যমগুলোতে অনন্ত জলিলের বক্তব্যও তুলে ধরা হয়। এএফপিকে অনন্ত বলেন, ‘যদি আমি তরুণ প্রজন্মের কাছে ইসলামের বাণী পৌঁছে দিতে পারি তারাও উপকৃত হবেন আমারও ফায়দা হবে। আমি নিজেকে ইসলামিক কার্যক্রমে জড়িয়ে আনন্দিত বোধ করছি।’

গত ২৯ জুলাই থেকে রাজধানীর ধানমন্ডির তাকওয়া মসজিদে তিন দিনের তাবলিগ জামাতে ছিলেন। এসময় তিনি ধানমন্ডির রবীন্দ্রসরোবরে উপস্থিত থেকে সবাইকে ইসলামের দাওয়াত দেন। সেসময়কার কিছু ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে।

এদিকে এই নায়কের নতুন খবর হলো, শিগগিরই দ্বিতীয় সন্তানের বাব হতে যাচ্ছেন অনন্ত জলিল। সবকিছু ঠিক থাকলে অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহেই নতুন অতিথি পৃথিবীতে আসবে অনন্ত-বর্ষার সংসার আলো করে।






মন্তব্য চালু নেই