মেইন ম্যেনু

আপনার সন্তান কি যৌন নির্যাতনের শিকার?

শিশুদের শারিরীকভাবে নির্যাতিত হওয়ার ঘটনা অহরহ ঘটছে আজকাল। বুঝে উঠার আগেই অনেক শিশু জীবন থেকে ছিটকে পড়ছে এ ধরণের নিপীড়নের কারণে। তাই অভিভাবককেই সতর্ক থাকতে হবে এ ব্যাপারে। সন্তান ভয়ে, দ্বিধায় মুখ খুলে বলতে না পারলেও তাদের অদ্ভুত আচরণই বলে দেবে কিছু একটা ধ্বংসাত্মক আলোড়ন চলছে তাদের ভেতর।

ধরুন, আপনার সন্তান হঠাৎ করে সব কিছু থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিচ্ছে। সে আপনার সঙ্গে ঠিকমতো কথা বলে না। এমনকি স্কুল থেকে ফিরে বন্ধুদের সঙ্গে বিকেলে খেলতেও বেরোয় না। এদিকে সমস্যাটা কি সেটা বোঝাও যাচ্ছে না।

তাহলে কি করবেন? ভাবুন, আপনার সন্তান যৌন নির্যাতনের শিকার কি না। আজকের দিনে এ বিষয়টি এড়িয়ে যাওয়ার উপায় নেই।

প্রথমত, আপনার সন্তানকে আস্থার চোখে দেখুন এবং তাকে সরাসরি জিজ্ঞেস করুন কেউ তার শরীরের স্পর্শকাতর জায়গায় আঘাত করেছে কি না। উত্তেজিত না হয়ে শান্ত স্বরে জিজ্ঞেস করুন এবং তাকে স্বস্তি ও নিরাপত্তা দেয়ার ভরসা যোগান। এই বয়সের বেশিরভাগ শিশু নিজেদের বিরক্তির কথা খুব স্পষ্ট ও গভীরভাবে প্রকাশ করে থাকে।

এমনও হতে পারে কেউ তাকে বিরক্ত করছে, বা স্কুলের বন্ধুরা তাকে কোণঠাসা করে রেখেছে বলে সে এধরণের বিভ্রান্তিকর আচরণ করছে।

আপনার সন্তানকে বোঝান যে, তাকে অপরাধী ভাবা হচ্ছে না। কেবল সঠিক ব্যাপারটি জানতে চাওয়া হচ্ছে।

ক্লাসে তার কোন অসুবিধা হচ্ছে কি না জানার জন্য তার স্কুলের শিক্ষকদের সঙ্গেও আলোচনা করতে পারেন। সবকিছুর পরও যদি আপনার মনে হয়, কেউ আপনার সন্তানকে যৌন নির্যাতন করছে তাহলে অবিলম্বে বিষয়টি তদন্ত করুন। প্রয়োজনে মানসিক চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।