মেইন ম্যেনু

আপনার হাতের মোবাইল দিয়ে করতে পারবেন ৫টি দুর্দান্ত কাজ, যা জানতেনই না আপনি

আমরা মোবাইল ফোন দিয়ে কি করি? জানি উত্তরে বলবেন কথা বলি, নেট ব্রাউজ করি, মেসেজ করি। এছাড়া টুকটাক ছবি তুলি, কিংবা গেম খেলি, গান শুনি। এই তো। তার বেশি কিছু? সম্ভবত না। তাহলে জেনে রাখুন, আপনার স্মার্ট ফোনে কী কী কাজ করা যেতে পারে তা আপনারও কল্পনারও অতীত। এখানে রই‌ল স্মার্ট ফোনের সেরকমই ৫টি অভিনব ব্যবহারের হদিশ—

১. আপনার টিভির রিমোট কন্ট্রোলটি ঠিকঠাক কাজ করছে কি না জানতে চান? মোবাইলের ক্যামেরাটি অন করে রিমোটের একেবোরে সামনের অংশটিতে ধরুন। রিমোটের যে কোনও একটি বোতাম টিপুন এবার। দেখবেন, রিমোটের সামনের কাঁচের বলের মতো অংশটির ভেতরে একটা নীল আলো জ্বলছে। এটা আসলে ইনফ্রা রেড রশ্মি। খালি চোখে এই রশ্মি ধরা পড়ে না। কিন্তু মোবাইল ক্যামেরায় ধরা পড়ে। আর রিমোটের বোতাম টেপার পর যদি সেই নীল আলো দেখতে না পান তাহলে বুঝতে হবে, রিমোটের ব্যাটারি পাল্টানোর সময় এসেছে।

২. জানেন কি, আপনার মোবাইলের ব্লুটুথ হেডসেটটি আপনার মোবাইল ক্যামেরার রিমোট শাটার হিসেবে ব্যবহার করা যায়? এর ফলে আপনি মোবাইলটি দূরে বসিয়ে রেখেও আপনার ব্লুটুথ হেডসেটের সাহায্যে সেলফি তুলতে পারবেন। তবে এটাও বলে রাখা দরকার যে, যে কোনও হেডসেট আপনার মোবাইল ক্যামেরার শাটারের রিমোট কন্ট্রোল হিসেবে কাজ করবে না। আর হেডসেটের কোন বোতামটি কতবার টিপলে মোবাইলে ছবি উঠবে সেটাও একটু পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে আপনাকে আবিষ্কার করতে হবে।

৩. আপনার মোবাইলটি যে একটি মাঝারি মাপের মাইক্রোস্কোপ হিসেবে কাজ করতে পারে তা কি জানেন? আপনার মোবাইলের লেন্সে একফোঁটা জল ফেলে দিন শুধু। এবার ক্যামেরাটি অন করে যে কোনও বস্তু থেকে আধ ইঞ্চি দূরে রাখুন। লেন্সটিকে ফোকাস করতে দিন। দেখবেন, স্বাভাবিকের থেকে বহু গুণে বড় দেখাচ্ছে জিনিসটিকে। আসলে, জলের ফোঁটাটি লেন্স হিসেবে কাজ করে। তাতে ক্যামেরায় স্বাভাবিকের থেকে বহুগুণে বড় দেখায় যে কোনও জিনিসকে। আপনার মোবাইল ধরা হাতটি যত কম কাঁপবে তত ভাল ফোকাস পাবেন। তবে খেয়াল রাখবেন, মোবাইল ক্যামেরার লেন্সে যেন বেশি জল না পড়ে যায়।

৪. আপনার মোবাইলের ক্যামেরার মাধ্যমে কোনও নির্দিষ্ট বস্তু আপনার থেকে কতটা দূরে রয়েছে তা-ও জানা যায়। বেশ কিছু ডিসট্যান্স মেজারিং অ্যাপ বিনামূল্যে গুগল প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করা যায়। সেগুলি এই কাজে আপনাকে সাহায্য করবে। এই অ্যাপটি ইনস্টল করার পর মোবাইল ক্যামেরাটি অন করে যে বস্তুর দূরত্ব পরিমাপ করতে চান, সেটিকে ক্যামেরায় ধরুন। অ্যাপ নির্দেশিত দাগের উপর বস্তুটিকে আনুন। এবার মাটি থেকে কতটা উঁচুতে ক্যামেরাটি ধরে রয়েছেন তার একটি আনুমানিক পরিমাপ অ্যাপটিকে জানান। অ্যাপটি হিসেব কষে জানিয়ে দেবে, বস্তুটির দূরত্ব। যে হিসাব এইভাবে আসবে তা মোটামুটি নির্ভরযোগ্য।

৫. আপনার মোবাইলের সাহায্যে ক্যানসারের বিরুদ্ধে মানুষের লড়াইকে আরও শক্তিশালী করে তুলতে পারেন। স্যামসাং পাওয়ার স্লিপ বা এইচটিসি পাওয়ার টু গিভ অ্যাপগুলি আপনাকে এই কাজে সাহায্য করবে। আপনার মোবাইল যখন রাত্রে চার্জে বসানো থাকে তখন এই অ্যাপগুলি আপনার মোবাইলের ডাটা অ্যানালাইজ করে মোবাইলটির কম্পিউটেশনাল পাওয়ার পরিমাপ করে। তারপর সেই পাওয়ার বিভিন্ন সরকারি ও ডাক্তারি সংস্থা, যেগুলি ক্যানসারের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে গবেষণা চালাচ্ছে, সেখানে অনুদান হিসেবে পৌঁছে দেয় এই অ্যাপগুলি। এতে গবেষকদের গবেষণায় সহায়তা হয়।