মেইন ম্যেনু

আপনিও এমন ফোন পেতে পারেন, তার আগেই সাবধান হয়ে যান!

প্রতারকেরা সফল ভাবেই তাদের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে অনেকের কাছেই ফোন এসেছে এমন অভিজ্ঞতার কথা তারা জানিয়েছেন। আবার অনেকে তাদের পাতা ফাঁদে পড়েছেন। কিন্তু আর নয়। এবার সাবধান হয়ে যান।

হ্যালো, আপনি কি মিস্টার এক্স বলছেন? আপনার তো একটি এলআইসি রয়েছে, যেটার বার্ষিক প্রিমিয়াম ১০ হাজার টাকা? প্রশ্ন করছেন মিষ্টি গলার একটি মেয়ে। আপনিও দেখলেন সব সঠিক তথ্য। আপনিও বিশ্বাস করে নিলেন যে, নিশ্চয়ই নির্দিষ্ট ওই এলআইসি সংস্থার কোনো কর্মী ফোনটি করেছেন। এবার আপনাকে বলা হবে, আপনার একটি বড় অঙ্কের টাকা বোনাস হিসেবে পেয়েছেন। তবে এর জন্য আপনাকে কিছু তথ্য দিতে হবে। আপনি সেটা পরেও পাঠাতে পারেন তবে ফোনে আপডেট করে দিলে টাকাটা পেতে সুবিধা হবে।

শুধু, এমন ফোনই নয়, আপনার কাছে ব্যাংকের নাম করেও ফোন আসতে পারে। এমন ফোন আসছে এবং অনেকেই তা পেয়েছেন। যে কোনো দিন আপনিও পেতে পারেন। সেই ফোনে বলা হবে, আপনার কাছে যে এটিএম কার্ডটি রয়েছে, সেটি পুরনো হয়ে গিয়েছে। এখনই সেটা আপডেট করা প্রয়োজন। তাতে আপনি কিছু বাড়তি সুবিধা পাবেন। এই টোপটি দিয়ে যখনই আপনাকে রাজি করিয়ে ফেলবে তখনই ফোনের অপর প্রান্তের মধু-কণ্ঠী কন্যা আপনার এটিএম কার্ড নম্বর, পিন, সিভিভি নম্বর ইত্যাদি জানতে চাইবেন। চাহিদা শুনেই, আপনি যদি গড়গড় করে বলতে শুরু করেন তাহলে আর বিপদের কিছু বাকি থাকবে না।

মনে রাখবেন, এই ধরনের যত ফোন আসছে তার সবই বিভিন্ন জাল চক্রের কারসাজি। ইতিমধ্যেই সব ব্যাংক, জীবনবিমা সংস্থা এ নিয়ে প্রচার শুরু করেছে। তবু জাল চক্র সাফল্যের সঙ্গে কাজ করে চলেছে কারণ, বহু মানুষই লোভে পড়ে ফাঁদে পা দিচ্ছেন।

আপনার কাছে এমন ফোন এলে কোনো তথ্য তো দেবেনই না বরং, সম্ভব হলে তার সাথে কথাবার্তার পুরো বিষয়টা রেকর্ড করে নিবেন। যে সংস্থার নাম বলে ফোন করছে তাদের কাছে ফোন নম্বরটি দিয়ে অভিযোগ জানান। পুলিশের কাছেও অভিযোগ জানাতে পারেন। মনে রাখবেন কোনো ব্যাংক বা জীবনবিমা সংস্থা ফোন করে কোনো তথ্য চাইতে পারে না। কোনো রকম অফারও দিতে পারে না।-এবেলা