মেইন ম্যেনু

আপনি কি ঘন ঘন অজ্ঞান হয়ে পড়ছেন?

অনেক সময় আমরা হুট করে জ্ঞান হারিয়ে ফেলি। জ্ঞান হারিয়ে ফেলা ঘটনাটি ঘটে যখন আমাদের মস্তিষ্ক পর্যাপ্ত পরিমাণে অক্সিজেন পায় না তখন। যাকে চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় “সিনকপ” বলা হয়। যদিও এটি অনেক বড় কোন রোগের লক্ষণ নাও হতে পারে। তবুও যারা ঘন ঘন অজ্ঞান হয়ে থাকেন, তাদের কিছুটা সচেতন হওয়া উচিত। সাধারণত কেউ অজ্ঞান হয়ে পড়লে তার মুখে কিছুটা জলের ছিটে দিলে জ্ঞান ফিরে আসে। এই হঠাৎ জ্ঞান হারিয়ে ফেলার পিছনে কিছু কারণ রয়েছে। আসুন তাহলে কারণ জেনে নেওয়া যাক।

১। রক্তচাপ সমস্যা

নিম্ন রক্তচাপের কারণে অনেক সময় মানুষ অজ্ঞান হয়ে পড়তে পারেন। একে চিকিৎসা শাস্ত্রে হাইপোগ্লাইসেমিয়া বলা হয়। যদি আপনি কোন বেলা না খেয়ে থাকেন তখন অনেক সময় রক্তে শর্করার অভাব দেখা দিয়ে থাকে। যার কারণে মাথা ঘুরিয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলার মত ঘটনা ঘটে থাকে। তাই হুট করে অজ্ঞান হয়ে পড়লে ভয় পাবেন না। খাওয়াটা ঠিকমত করুন, দেখবেন সমস্যার সমাধান হয়ে গেছে।

২। হঠাৎ করে দাঁড়িয়ে যাওয়া

শোয়া বা বসা থেকে হঠাৎ করে দাঁড়িয়ে পড়লে মাথা ঘুরে জ্ঞান হারিয়ে ফেলতে পারেন। সেই সময় মস্তিষ্কে রক্ত না পৌঁছে পায়ে এসে জমা হয় যার কারণে হুট করে আপনি অজ্ঞান হয়ে পড়েন। তাড়াহুড়া করে বসা বা শোয়া থেকে না উঠে আস্তে আস্তে সময় নিয়ে উঠুন।

৩। স্ট্রেস

হাইপারটেশনের কারণে শরীরে অনেক রোগ বাসা বাঁধতে পারে। অতিরিক্ত স্ট্রেস বা দুশ্চিন্তার কারণেও আপনি হঠাৎ করে জ্ঞান হারিয়ে ফেলতে পারেন। তাই জীবন থেকে স্ট্রেসকে দূরে রাখুন সুস্থ থাকবেন।

৪। অতিরিক্ত আবেগ

মানুষ মাত্রই আবেগপ্রবণ মানুষ। আবেগপ্রবণ হওয়ার মত ঘটনা প্রতিনিয়ত আমাদের জীবনে ঘটে থাকে। ডাক্তাররা বলছেন, “ অনেক সময় কোন খারাপ সংবাদ আবার আনন্দের সংবাদ শোনার পরও মানুষ জ্ঞান হারিয়ে ফেলতে পারেন”। আপনি যখন আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন তখন আপনার রক্তচাপ বৃদ্ধি পায়, অতিরিক্ত ঘাম হয় এবং একসময় আপনি জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন।

৫। খালি পেট

দীর্ঘসময় না খেয়ে থাকার কারণেও অনেক সময় জ্ঞান হারিয়ে ফেলতে পারেন। দীর্ঘ সময় না খেয়ে থাকার ফলে মস্তিষ্কে জ্বালানি পৌঁছায়ে না যার কারণে জ্ঞান হারিয়ে ফেলার মত ঘটনা ঘটে থাকে।

৬। অনিয়মিত হার্ট বিট

অনিয়মিত হার্টবিটের কারণে মস্তিষ্কে রক্ত পৌঁছাতে পারে না। যার কারণে জ্ঞান হারিয়ে ফেলাসহ হার্ট অ্যাটাক, স্টোক, ধমনী বলক হওয়ার মত ঘটনাও ঘটতে পারে।
আপনি যদি ঘন ঘন অজ্ঞান হয়ে পড়েন তবে দেরি না করে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করুন।