মেইন ম্যেনু

“আপনি কি বাড়ির দরজা খুলে যৌনসঙ্গম করতে চান”

জেমস বন্ড সিরিজের সর্বশেষ ছবি ‘স্পেক্টার’ দেশজুড়ে মুক্তি পেয়েছে। সেই সিনেমায় লম্বা চুমুর দৃশ্য ভারতীয় সেন্সর কাঁচি চালানোয় চারিদকে হইচই। শুরু বিতর্ক, সমালোচনা। সেন্ট্রাল বোর্ড ফর ফিল্ম সার্টিফিকেশনের চেয়ারম্যান পহলাজ নিহলনির বিরুদ্ধে আরও বিস্ফোরক অভিযোগ উঠেছে। নরেন্দ্র মোদী ও ভিএইচপির সুপারিশমতো কাজ করে শীর্ষ নেতাদের ঘনিষ্ঠ হতে চান তিনি, অভিযোগ বিশিষ্ট পরিচালকের। এবার সেই বিতর্কে নয়া সংযোজন জেমস বন্ডের চুমুতে কাঁচি চালিয়ে। কিন্তু বিপাকে পড়েও পিছু হঠতে নারাজ বোর্ড প্রধান পহলাজ নিহলনি। মুম্বই মিররকে দেওয়া এক সাক্ষাৎরে তিনি নিজের কাজকে বেশ জোর গলাতেই সমর্থন করেছেন।

পহলাজ বলেছেন ‘‘আগের বোর্ডের মাথারা ভারতীয় সংস্কৃতি নিয়ে মোটেও মাথা ঘামাতেন না। আমরা তো চুম্বন দৃশ্যর অনুমতি দিয়েছি। শুধু দৃশ্যটা খানিক ছোট করেছি।’’ ১০ সেকেন্ডের চুমুর সঙ্গে এক মিনিটের লম্বা চুমুর পার্থক্যটা কী জানতে চাইলে বেশ রেগে যান তিনি। উত্তর দেন ‘‘এবার কি আপনি বাড়ির দরজা খুলে সঙ্গম করতে চান? দুনিয়ার লোককে দেখাতে চান ঠিক কীভাবে আপনি সঙ্গমটা করেন?’’ যদিও চুমুর সঙ্গে প্রকাশ্যে সঙ্গমের সম্পর্ক জানতে চাইলে তাঁর কাছ থেকে কোনও সদুত্তর পাওয়া যায়নি।

পহলাজ নিহলনি নিজেও প্রায় চার দশক ধরে বহু সিনেমা বানিয়েছেন ও ডিস্ট্রিবিউট করেছেন। যদিও অধিকাংশ সিনেমাই কখনও সমালোচকদের কাছে বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠেনি। এহেন এক ব্যক্তি কী করে চুম্বনের সঙ্গে সঙ্গেমের তুলনা টেনে দৃশ্যের উপর কাঁচি চালাতে পারেন, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অধিকাংশ বলিউডি পরিচালক এই প্রশ্নটাই বারবার তুলছেন।

সূত্র: কলকাতা২৪