মেইন ম্যেনু

আপনি জানেন কি, অজয় দেবগণের জীবনে ঘটে যাওয়া ১০ টি অজানা ঘটনা

বলিউড অভিনেতাদের মধ্যে অত্যন্ত সিরিয়াসনেস অভিনেতা হচ্ছেন অজয় দেবগণ। পর্দা ও পর্দার বাইরেও তিনি একই রকম সিরিয়াসনেস। তবে অভিনয়ের ক্ষেত্রে কমেডি চরিত্রেও মানিয়ে নিয়েছেন আজকাল তিনি নিজেকে। দুইবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ও একবার পদ্ম পুরস্কারে ভূষিত এই অভিনেতার আর জন্মদিন। এই জন্মদিনে তার জীবনে ঘটে যাওয়া ১০ টি অজানা ঘটনা তুলে ধরা হলো তার ভক্ত অনুরাগিদের জন্য।

১। সুপারহিট ফিল্ম ‘করণ অর্জুন’-এর জন্য পরিচালকের প্রথম পছন্দ ছিলেন অজয় দেবগণ। সালমান খানের রোলটি অফার করা হয়েছিল তাকে। ‘ডর’ ছবিতে শাহরুখের চরিত্রটিও প্রথমে অফার করা হয়েছিল অজয়কে। আমির খান নাকচ করে দেওয়ার পর অজয় দেবগণের কাছে ‌গিয়েছিলেন পরিচালক।

২। বচ্চন পরিবারের বাইরে প্রথম ‌যিনি অভিষেকের বিয়ের পরিকল্পনা সম্পর্কে জানতেন, তিনি অজয় দেবগণ।

৩। ‘ফুল অউর কাঁটে’ ছবি দিয়ে বলিউডে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন অজয়। তার আগা ১৯৮৫ সালে ‘প্যায়ারি বাহানা’-য় মিঠুন চক্রবর্তীর ছোটবেলার চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন তিনি।

৪। ‘বাজিরাও মস্তানি’-র লিড রোল অজয়কে অফার করেছিলেন সঞ্জয় লীলা বানসালি। কিন্তু পারিশ্রমিক ও ডেট নিয়ে মতৈক্য না-হওয়ায় শেষ প‌র্যন্ত কাজ করেননি তিনি।

৫। রোজ সকালে বাবা-মাকে প্রনাম করে তবে বাড়ি থেকে বেরোন অজয়।

৬। অজয়ের একটি চোখে সমস্যা আছে। তাই খুব বেশিক্ষণ সিনেমা দেখতে পারেন না তিনি।

৭। স্ত্রী কাজলের সঙ্গে ‘হলচল’-এর সেটে দেখা হয়েছিল অজয়ের। কিন্তু ডেটিং শুরু করেন ‘গুন্ডারাজ’-এর সময় থেকে। এখন দম্পতি নিয়াসা ও ‌যুগ নামে দুই সন্তান রয়েছে।

৮। অজয় দেবগণ ‘জখম’ ছবিতে পূজা ভট্টের সঙ্গে কাজ করেছিলেন। এর পর মহেশ ভট্টের ছবি ‘গিরবি’-তে একসঙ্গে কাজ করার কথা ছিল তাঁদের। কিন্তু ২০ শতাংশ কাজ শেষ হওয়ার পর ছবিটি বন্ধ হয়ে ‌যায়। ‘সিঙ্গার’ নামে অজয়ের অন্য একটি ছবিও কোনওদিন হলের মুখ দেখেনি।

৯। অজয়ের ভাল বন্ধুরা প্রায় সবাই তার কলেজের বন্ধু। এছাড়া তার বিশেষ বন্ধুদের তালিকায় নাম রয়েছে অভিষেক বচ্চন, সঞ্জয় দত্ত ও রোহিত শেট্টির।

১০। ১৯৯৯ সালে ফিরোজ খানের ছবি ‘কুরবান তুঝ পর মেরে জান’-এ কাজ করেছিলেন অজয়। কিন্তু ছবিটি কোনওদিন মুক্তি পায়নি।