মেইন ম্যেনু

আপনি জানেন কি? যে ৫টি সমুদ্র সৈকতে কেন যায় সুন্দরী মেয়েরা!

৫টি সমুদ্র সৈকতে কাপড় না পরে কেন যায় সুন্দরী মেয়েরা তা জানলে মাথা নষ্ট হবে আপনার। সত্যিই লজ্জার, যা জানলে আদিযুগকেও হার মানাবে।

ক্রোয়েশিয়া থেকে কানাডা, গোটা বিশ্বের এমন ৫টি সমুদ্র সৈকত আছে, যেখানে মেয়েরাও পোশাক পরে না। এখানে প্রবেশ করতে হলে যে ‌‘ওপেন সিক্রেট’ সবার জানা তা হলো, ‘এখানে পোশাক পরিবেন না, পোশাক পরে এখানে আসিবেন না’।

বিশ্বের সবথেকে বড় সমুদ্র সৈকত বাংলাদেশের কক্সবাজার, কিন্তু এখানে এ ধরনের কোনো রেওয়াজ নেই। ওপার বাংলা হোক আর এপার বাংলাই হোক, সমুদ্রের প্রেমে পড়েছেন যারা, তারা বেশির ভাগ পরিস্থিতি আর প্রকৃতির সৌন্দর্য্যই উপভোগ করতে যান।

পোশাক না পরার স্বাধীনতা বা আনন্দ যাই বলুন না কেন, সেই মওকা পাওয়া দুস্কর। গোয়ার নীল সমুদ্র থেকে হংকংয়ের সমুদ্র সৈকত সবার নিজস্বতা আছে। পশিমবঙ্গের মানুষ দীঘা, মন্দারমনি, তালশারিতেও সমুদ্রের আমেজ পান।

তবে তা এই ৫ সমুদ্র সৈকতের মতো নয়, যা মানুষের মনে ফ্যান্টাসি। আবার এমনটাও বলা যায়, ‘বামন হয়ে চাঁদ ছোয়ার স্বপ্ন’। কেবল তো অর্থ থাকলেই সবটা সম্বব নয়, প্রয়োজন হয় কিছু উদার ভাবনা চিনান্তারও।

তথাকথিত রুচিশীল মানুষ বাঁকা চোখে দেখলেও গোটা বিশ্ব এই ৫ সমুদ্র সৈকতের রূপকথায় দিওয়ানা। জেনে নিন, সেই ৫ সমুদ্র সৈকতের কথা-

ক্রোয়েশিয়ার প্রজিদ সমুদ্র সৈকত (Beach Proizd, Croatia)
কানাডার রেক সমুদ্র সৈকত (Wreck Beach, Canada)
ডেনমার্কের বেলভিউ সমুদ্র সৈকত (Bellevue Beach, Denmark)
ব্রাজিলের, প্রাইয়া ও পিনহো সমুদ্র সৈকত (Praia do Pinho, Brazil)
ফ্রান্সের মন্তালিভেট সমুদ্র সৈকত (Montalivet Beach, France)