মেইন ম্যেনু

আপনি জানেন ফেসবুকের বিকল্প কি?

সময়ের সাথে সাথে অত্যন্ত জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে ফেসবুক। আজকাল ফেসবুকটা অনেকের কাছে নেশার মতই হয়ে উঠেছে। প্রতিদিনই বিশ্বের এক বিলিয়নেরও বেশি মানুষ এই ফেসবুক ব্যবহার করে থাকেন।

তবে মাঝে মাঝে ফেসবুকটাও কিন্তু অত্যন্ত বিরক্তকর হয়ে উঠে কিছু কিছু বিরক্তর পোস্ট আর নিতান্ত্ই বিরক্তকর কিছু মানুষের উপস্থিতিতে। তবে এবার আর চিন্তা নেই। বিরক্তর হাত থেকে বাঁচতে এবং প্রিয় মানুষগুলোর সাথে নিয়মিত যোগাযোগ বা গল্প করতে ব্যবহার করতে পারেন ফেসবুকের বিকল্প (www.messenger.com)।

এর মাধ্যমে আপনি বন্ধুদের সঙ্গে অনায়াসে চ্যাট, ছবি আদানপ্রদান-সহ বহু কাজ করতে পারেন।

ফেসবুকের মূল ওয়েবসাইট এখন বহুবিধ কাজে লিপ্ত। সেখানে অপরিচিতদের অবাঞ্ছিত স্ট্যাটাস, খবর, ছবি- দিনভর আপনার হোমপেজকে ব্যস্ত করে রাখে।

কিন্তু এই লুকানো এই ওয়েবসাইটটি শুধুই আপনাকে আপনার প্রিয় বন্ধুর সঙ্গে গল্প করার সুযোগ দেবে।

এখানে আপনি পাবেন একটি স্বচ্ছ পরিষ্কার হোমস্ক্রিন। দেখতেও মূল ওয়েবসাইটের থেকে একেবারেই আলাদা। ফেসবুকের মূল ওয়েবসাইটে খুব অল্প জায়গা জুড়েই চ্যাটের অপশন পান ইউজাররা। কিন্তু নয়া ওয়েবসাইটে আপনি পাতাজুড়ে গল্প করার সুবিধা পাবেন।

মেসেঞ্জার ডট কমে আপনি বন্ধুদের সঙ্গে গ্রুপ চ্যাট, ফটো শেয়ারিং, অডিও রেকর্ডিং পাঠানোর মত কাজ খুব অল্প ডেটা খরচ করে সেরে ফেলতে পারবেন।

তবে মজার কথা হচ্ছে, আজকাল অনেক অফিসেই ফেসবুক ‘ব্লক’ করে রাখা হয়। এই ওয়েবসাইটটি কিন্তু আপনি অনায়াসেই কম্পিউটার থেকে খুলে ব্যবহার করতে পারেন। কারণ, প্রায় অজানা এই ওয়েবসাইট ব্লক করে রাখা হয় না কোনও অফিসেই।