মেইন ম্যেনু

আপন দুই ভাইয়ের নৌকা-ধানের শীষের ভোট যুদ্ধ

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: আপন দু’ভাই। রাজনৈতিক মতাদর্শ ভিন্ন। তারপরও সম্পর্ক ভাল। এবার একই ইউনিয়নে পৃথক দলের প্রতীকে চেয়ারম্যান পদে ভোট যুদ্ধে নেমেছেন আপন দুই ভাই আব্দুর রহিম ও লুৎফর রহমান। ভোটের চেয়ে দুই ভাইয়ের প্রার্থী হওয়ার বিষয় এখন সবার মুখে মুখে।

অপরদিকে ঐ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক পেয়েছেন লাঙ্গলের মনোনয়ন। সব মিলে আলোচনার ঝড় ভুরুঙ্গামারী উপজেলার পাইকেরছড়া ইউনিয়ন জুড়ে।

Kurigram  Up Election  Photo 27.03.16

কুড়িগ্রাম জেলার ভুরুঙ্গামারী উপজেলার পাইকেরছড়া ইউনিয়নের ৯ ওয়ার্ডে ভোটার সংখ্যা ১৮হাজার ৮৩জন। পুরুষ ৮হাজার ৮২৬ ও মহিলা ৯ হাজার ২১৭। পাইকেরছড়া এলাকার মৃত জয়নুদ্দিন মাস্টারের ছোট পুত্র লুৎফর রহমান নৌকা মার্কার প্রার্থী হয়েছেন। তিনি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের বর্তমান সভাপতি। আর বড় পুত্র আব্দুর রহিম বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র মনোনয়ন পেয়ে ধানের শীষ প্রতীকে ভোট করছেন। ভোটারদের সাথে কুশল বিনিময় ও ভোট প্রার্থনা করছেন তারা। কেউ কারো বিরুদ্ধে নেতিবাচক কথা বলছেন না। বরং কোমড় বেঁধে মাঠে নেমেছেন নিজেদের পক্ষে জনসমর্থন আদায়ে।
আওয়ামীলীগের প্রার্থী লুৎফর রহমান বলেন, এটা ভাল লাগার বিষয়। দলীয় নির্বাচন। এক পরিবারের দুই ভাইকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। জনগণ বেছে নেবে কাকে সমর্থন দেবে। এটি আদর্শের লড়াই। গনতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় শান্তিপূর্নভাবে এর সমাধান হবে সম্মানিত ভোটারদের ভোটাধিকার প্রয়োগের মধ্য দিয়ে।
পাইকেরছড়া ইউপি বিএনপির সভাপতি আব্দুর রহিম দলের হয়ে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তিনি বলেন, আলাদা দলের ভিন্ন আদর্শের রাজনীতি করি। আমরা দু’ভাই দু দল থেকে মনোনয়ন পেয়েছি। যাকে ভাল লাগে জনগণ তাকে ভোট দেবে। এখানে ভাগ্যেরও প্রয়োজন আছে। সম্মান রাখার মালিক আল্লাহ্।

এ ইউনিয়নে জাতীয়পার্টির (এরশাদ) মনোনয়ন পেয়েছেন ইউনিয়ন আ.লীগের সাবেক সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক। নির্বাচনি উত্তাপের মাঝে এ ইউনিয়নের আপন ভাইয়ের ভোট যুদ্ধ এবং নৌকার লোককে লাঙ্গলের মনোনয়ন দেয়ার বিষয়টি রয়েছে আলোচনার তুঙ্গে।

এ ইউনিয়নে আরো দুই স্বতন্ত্র প্রার্থী এমএ জব্বার ও শহিদুল ইসলামসহ মোট ৫ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করছেন। ভুরুঙ্গামারী উপজেলার সাত ইউনিয়নে দ্বিতীয় ধাপে আগামী ৩১ মার্চ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।