মেইন ম্যেনু

আফ্রিকায় রাজার জন্য স্ত্রী খুজতে প্রকাশ্যে নগ্ন করে তরুণীদের কুমারিত্ব পরীক্ষা!

বছরের নির্দিষ্ট সময়ে রাজা প্রতি বছর একজন করে নতুন রানি বেছে নেন । তার জন্য প্রকাশ্যে পরীক্ষা করা হয় নাবালিকাদের কুমারিত্ব । পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের মধ্যে থেকে একজনকে রানি হিসেবে মনোনীত করেন রাজা ।

আরব্য রজনীর গল্প নয় । এটা বাস্তব ঘটনা আফ্রিকার সোয়াজিল্যান্ডে । আফ্রিকার দক্ষিণ অংশে এই ছোট্ট দেশটা সোয়াজি উপজাতি অধ্যুষিত । দেশের সিংহাসনে আসীন রাজা তৃতীয় সোয়াতি । প্রচলিত রীতি হল, বছরের নির্দিষ্ট সময়ে রাজা নতুন রানি বেছে নেবেন ।

সেই উপলক্ষে রাজার সামনে অবিবাহিতা নাবালিকারা ঊর্ধ্বাঙ্গ অনাবৃত করে প্যারেড করেন । এরপর শুরু হয় উমহ্লাংলা উৎসব । রাজার সামনে নাচ গানে মেতে ওঠে ওই টপলেস-কন্যেরা । তারপর প্রকাশ্যে ওই মেয়েদের কুমারিত্ব বা ভার্জিনিটি পরীক্ষা করা হয় ।

আন্তর্জাতিক মহলে এই রীতি নিন্দনীয় হলেও সোয়াজিল্যান্ডে কোনও পরিবর্তনের চিহ্ন চোখে পড়েনি । সোয়াতি তৃতীয়-র বাবা রাজা দ্বিতীয় সোভুজার ছিলেন ১২৫ জন রানি । গত বছর ১৫ জন স্ত্রী, ৩০ জন কচিকাঁচা এবং শতাধিক পরিচারক নিয়ে ইন্ডিয়া আফ্রিকা সামিটে এসে ভারতে অতিথি হয়ে ছিলেন রাজা তৃতীয় সোয়াতি, নিজে। তিনি বিশ্বের ধনকুবের শাসকদের মধ্যে অন্যতম ।