মেইন ম্যেনু

আবারও সেই যুবকঃ “রাষ্ট্র, শিশুর নিরাপত্তা দাও”

জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে প্ল্যাকার্ড হাতে শুক্রবার দুপুরে এক যুবক দাঁড়িয়ে। রাজন হত্যা, পেটের শিশু গুলিবিদ্ধ হওয়ার মতো ঘটনার প্রতিবাদ জানাতে এসেছেন তিনি। দাবি তুলেছেন, ‘রাষ্ট্র, শিশুর নিরাপত্তা দাও।’

রাজধানীর তেজগাঁও কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী এই যুবকের নাম মোখলেছুর রহমান সাগর। ২০১৩ সাল থেকেই শিশু ও নারী নির্যাতন, ফরমালিন প্রতিরোধসহ বিভিন্ন সামাজিক ইস্যুতে প্রতিবাদ করে আসছেন সাগর।

সাগর বলেন, আজকের শিশুরাই আগামী দিনের বাংলাদেশ গড়বে। কিন্তু যেভাবে শিশুহত্যা ও নির্যাতন বাড়ছে তা হতাশার। এ শিশুদের নিরাপত্তা দেওয়ার দায়িত্ব রাষ্ট্রের। রাষ্ট্রে যদি শিশু নিরাপদ না থাকে তাহলে সেটা রাষ্ট্রেরই ব্যর্থতা।

গত তিন বছর ধরেই একা একা সামাজিক ইস্যুতে প্রতিবাদ করা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ২০১৩ সাল থেকে যখনই দেখেছি রাজনৈতিক সহিংসতায় মানুষ মারা যাচ্ছে, তখনই প্রতিবাদ করার বিষয়টি আমার মাথায় এসেছে। এরপর থেকে নানা ইস্যুতে আমি দেশের বিভিন্ন জায়গায় প্রতিবাদ করে আসছি।

তিনি বলেন, দেশের প্রতিটি বিবেকবান মানুষই হত্যা, নির্যাতন সহিংসতার বিরোধী। সবাই ঘরে বসে এ সবের সমালোচনা করে, ঘৃণা করে। আমি সেসব মানুষেরই প্রতিনিধি। আমি তাদের হয়েই প্রতিবাদ জানাতে আসি। বিবেকের তাড়না থেকেই দেশের মানুষের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে এককভাবে সামাজিক সচেতনতামূলক কাজ করছি।