মেইন ম্যেনু

আবারো ঝুঁকির মুখে পাকিস্তানের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

শেষ পর্যন্ত পাকিস্তান কী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অংশ নিতে পারবে, নাকি দর্শক হয়েই বসে থাকতে হবে? নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না কিছুই। ভারতে গিয়ে পাকিস্তানের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ আবারও পড়ে গেলো গভির অনিশ্চয়তায়। ভারতের উগ্রবাদী জঙ্গিগোষ্ঠিগুলোর সঙ্গে এবার সুর মিলিয়েছে হিমাচল প্রদেশের সরকার।

এমনকি তারা জানিয়ে দিয়েছে, পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের কোনরকম নিরাপত্তা দেবে না। এ পরিস্থিতিতে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের কোন সমস্যা হলে, তার দায়িত্ব তাদের নয়। হিমাচল প্রদেশ সরকার, ভারত-পাকিস্তান ম্যাচটি অন্যত্র সরিয়ে নেয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

এমন পরিস্থিতিতে ভারতে আফ্রিদিদের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে পাকিস্তান সরকারও। এমনিতে ভারতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলতে যাওয়ার বিষয়ে পাকিস্তান সরকার অনেক ভেবে-চিন্তে শেষ পর্যন্ত অনুমতি দিয়েছিল। কিন্তু উদ্ভূত পরিস্থিতিতে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট দলকে ভারতে পাঠানো নিরাপদ মনে করছে না পাকিস্তান সরকার।

এ কারনে পাকিস্তান সরকারের পক্ষ থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চৌধুরী নিসার এক বিবৃতি প্রকাশ করেছেন। যেখানে বলা হয়েছে, ‘পাকিস্তান সরকার যতক্ষণ পর্যন্ত না ভারত সরকারের পক্ষ থেকে ক্রিকেটারদের পূর্ণাঙ্গ নিরাপত্তার ব্যবস্থা না করবে, ততক্ষণ পর্যন্ত আমরা ক্রিকেট দলকে ভারতে খেলতে যেতে দেবো না।’ বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, চৌধুরী নিসার পুরো বিষয়টা তুলে ধরতে, শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন।

পাকিস্তানি মিডিয়া জানিয়েছে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চৌধুরী নিসার বৃহস্পতিবার টেলিফোনে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডেও (পিসিবি) চেয়ারম্যান শাহরিয়ার খানের সঙ্গে ভারতে নিরাপত্তা বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলাপ করেছেন।