মেইন ম্যেনু

‘আমার খুব কষ্ট হচ্ছে, আমি পারব না’

একটি সিনেমার শুটিংয়ের সময় কতটা আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছিলেন বলিউড তারকা বিদ্যা বালান তারই ইঙ্গিত পাওয়া গেছে পরিচালক সুজয় ঘোষের এক সাক্ষাৎকারে।দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকায় বুধবার প্রকাশিত ওই সাক্ষাৎকারে বিদ্যা বালানই শুধু নয় আরও অনেক বিষয় নিয়েই কথা বলেছেন তিনি।

সুজয় ঘোষ বলেন, সেটে একদিন সব কিছু রেডি। হঠাৎ বিদ্যা এসে বলল, ‘আমি এই সিনটা করতে পারব না। আমার খুব কষ্ট হচ্ছে।’ আমি ভাবলাম যেমন ইয়ার্কি মারে তেমনই ইয়ার্কি মারছে বোধহয়। তার পর দেখি অঝোরে কাঁদছে। সিনটাও অসম্ভব শক্ত ছিল। পরে অবশ্য যে অভিনয়টা করল, সেটা মাইন্ড ব্লোয়িং।

কাহানি সিনেমার সিকোয়েল নিয়ে সুজয় ঘোষ নির্মাণ করছেন ‘কাহানি থ্রি’। ওই সিনেমা নিয়ে তিনি জানান, কাহানি থ্রিতে কাহানির অনেক অভিনেতাকেই দেখতে পাওয়া যাবে না। কারণ আগের কাহানির সঙ্গে কাহানি থ্রি’র মিল নেই।

টালিগঞ্জের কোনো নায়িকা নেই অথচ বিদ্যা বালানক নিয়েই সিনেমা বানাচ্ছেন- এমন প্রশ্নে সুজয় ঘোষের উত্তর, আমার ছবিতে অভিনেত্রী একজনই। বিদ্যা, বিদ্যা এবং বিদ্যা।

সুজয় ঘোষ বলেন, বলিউড ক্রমশ বাংলা ছবি নিয়ে ইন্টারেস্টেড হয়ে উঠছে। ‘রাজকাহিনির হিন্দি হচ্ছে। ‘বেলাশেষের কথা চলছে। অরিন্দম শীলের ‘হর হর ব্যোমকেশ’ শুনছি হিন্দিতে হতে পারে। ‘সিনেমাওয়ালা’, ‘প্রাক্তন’ নিয়ে কথা হচ্ছে। এটা খুব পজিটিভ সাইন।

কাহানি থ্রি নিয়ে এই পরিচালক বলেন, হ্যাঁ, ‘তিন’ নিয়ে আমি খুব এক্সাইটেড। পরিচালক ঋভু দাশগুপ্ত হ্যাজ বিন ফ্যানটাস্টিক। বিদ্যা একটা ছোট রোলে আছে। নওয়াজ দারুণ কাজ করেছে। আর বড়বাবু (আমিতাভ বচ্চান) তো আছেনই।