মেইন ম্যেনু

‘আমার গালে জুতা মার’ : আইভী

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভীর পদত্যাগ দাবি করে বিক্ষোভ মিছিল করছিলেন আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা । এসময় পেছনে এসে আইভীও যোগ দিলেন সেই মিছিলে । তারা যখন স্লোগান দিচ্ছিল- ‘মার মার আইভীর দুই গালে জুতা মার, জুতা মার তালে তালে’ তখনই বিক্ষোভকারীদের মাঝ থেকেই আইভী বলে উঠলেন- ‘মার আমার গালে জুতা।’

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের নগর ভবনের সামনে আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা আইভীর পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ করে । এসময় তিনি অফিস কক্ষে ছিলেন। বিক্ষোভকারীরা যখন মাইকে আইভীর বিরুদ্বে নানা ধরনের স্লোগান দিচ্ছিল তখন নিজেই চলে আসেন ওই বিক্ষোভে । এরপর যে ব্যানারে আইভীকে পদত্যাগের আহ্বান করা হয়, সে ব্যানারের পেছনে দাঁড়িয়ে ছবি তোলেন । বিক্ষোভকারীরা যখন স্লোগান দেন তখন আইভীও তাদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেন। তখন আইভীর সঙ্গে প্যানেল মেয়র-১ হাজী ওবায়েদউল্লাহও উপস্থিত ছিলেন। স্লোগান ছিল আইভীর দুই গালে জুতা মার তালে তালে। জবাবে স্লোগান দেওয়া লোকজন ও বিক্ষোভকারীদের কাছে গিয়ে আইভী বলেন ‘মার আমার গালে জুতা’। আইভীর কণ্ঠে এ কথা শুনে বিক্ষোভকারীরা কিছু সময়ের জন্য হকচকিয়ে যান।

পরে সদর মডেল থানার ওসি আবদুল মালেকের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে নগর ভবনের গেটের সামনে থেকে বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দেন।

বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, সিটি করপোরেশনকে কুক্ষিগত করে একের পর এক দুর্নীতি করে চলেছে আইভী। অন্যদিকে নগরবাসীকে অল্প বৃষ্টিতেই পানিতে নিমজ্জিত হতে হচ্ছে। ঠিকাদার সুফিয়ানকে একের পর এক কাজ দিয়ে কোটি কোটি টাকার কমিশন দেওয়া হচ্ছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সেক্রেটারি খোকন সাহা, আওয়ামী লীগ নেতা রবিউল ইসলাম, জেলা যুবলীগের সহসভাপতি জাকিরুল আলম হেলাল, যুগ্ম সম্পাদক শাহ নিজাম, শহর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন সাজনু, শহর সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নাজমুল আলম সজল, সেক্রেটারি জুয়েল হোসেন, কাউন্সিলর ইসরাত জাহান খান স্মৃতি, যুবলীগ নেতা জানে আলম বিপ্লব, ফতুল্লা থানা যুবলীগের সভাপতি মীর সোহেল, ফতুল্লা থানা ছাত্রলীগের সভাপতি শরীফুল ইসলামসহ আরও অনেকে।