মেইন ম্যেনু

আমার বিয়ে, অথচ আমিই জানি না: সালমান

বেশ ক’দিন ধরেই বিশ্ব মিডিয়ায় রোমানিয়ান টিভি ব্যক্তিত্ব লুলিয়া ভান্তুরের সাথে সুপারস্টার অভিনেতা সালমান খানের বিয়ে নিয়ে জোরেসরে খবর প্রকাশিত হয়ে আসছে। এ প্রসঙ্গে সালমান খান কিংবা লুলিয়ার কাছ থেকে কোনো মন্তব্য না পেলেও এবার নিজের বিয়ে নিয়ে মুখ খুললেন ‘ভাইজান’ খ্যাত অভিনেতা সালমান খান। বললেন আমার বিয়ে হয়েছে, অথচ আমার বাবাই সে বিষয়ে জানেন না কিছুই; এমনকি আমিও জানতাম না!

নিজের বিয়ের খবর মিডিয়ায় প্রকাশের পর এ বিষয়ে সালমান মুখ না খুললেও সম্প্রতি একটি বিনোদন ওয়েবসাইটকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ নিয়ে কথা বললেন সুপারস্টার অভিনেতা সালমান খান। রোমানিয়ান টিভি ব্যক্তিত্ব ও বান্ধবী লুলিয়া ভান্তুর প্রসঙ্গে সালমান বলেন, ‘ওহ! আমি ‘গুজব’কে খুব ভালোবাসি, আর সেটা যদি হয় আমার বিয়ের গুজবে খবর তাহলেতো আরো বেশী ভালোবাসি!’

এরপর স্বভাবচরিতভাবে নিজের বিয়ের গুজব সম্পর্কে সালমান বলতে থাকেন, ক’দিন আগে আমার বিয়ের গুজব যখন চারদিকে ছড়িয়ে গেল তখন কিছু সাংবাদিক দলবেধে আমার বাবার কাছে আসলেন। এবং তারা বাবাকে আমার বাগদান সম্পন্ন হওয়ায় মোবারকবাদ জানালেন। এবং আমার বিয়ের আগাম অভিনন্দন বার্তাও পৌঁছে দিলেন। বাবাতো এমন খবর শুনে কিংকর্তব্যবিমূঢ়। তিনি বিষয়টির কিছু না বুঝেই সাংবাদিকদের বলে উঠলেন, আমি এসব জানি না, সালমানতো ঘরে ঘুমুচ্ছে’!

তবে বিয়ের এমন গুজবে খবর কেমন করে ছড়ালো, এ বিষয়টি জানতে চাইলে সালমান বলেন, আসলে এবারে আমার বিয়ের খবরটি চারদিকে ছড়িয়েছে বিদেশী মিডিয়া থেকে। ভারতে বিষয়টি পরে ছড়িয়েছে। এর অবশ্য একটি কারণও আছে। লুলিয়া ভান্তুরের একজন বান্ধবী, তার নামও লুলিয়া। সেই লুলিয়া আঙুলে একটি রিং পরেছিল। যা পরবর্তীতে আমার বান্ধবী লুলিয়াকেও এমনিতেই শখ করে পরতে দিয়েছিলেন। আর ভান্তুরের এই রিং পরাটাই পাঁচ মিনিটের মধ্যে খবরে চলে আসে ‘বাগদান’-এর খবর হিসেবে। দ্রুত ছড়িয়ে যায় চারদিকে। শিরোনামেও চলে আসে। কিন্তু এরপরই লুলিয়া বিষয়টি পরিষ্কার করার চেষ্টা করেন যে, ওটা ছিল তার অন্য আরেক বান্ধবীর রিং। কিন্তু তাতে কোনো কাজ হয় না। দ্রুতই আরো ছড়িয়ে যেতে থাকে খবরটি।

উল্লেখ্য, শুধু এবারই নয়, বরং এর আগেও সালমান খানের সাথে রোমানিয়ান লুলিয়া ভান্তুরের মধ্যে ‘ডেট’ বিষয়ে খবর বেরিয়েছিল। কিন্তু এবারই প্রথম সরাসরি সালমানের সাথে লুলিয়ার বিয়ের খবর প্রকাশ হল। সম্প্রতি প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছিল যে ‘সালমান ও লুলিয়ার মধ্যে এনগেজডমেন্ট সম্পূর্ণ হয়েছে, সামনের বছরে বিয়ের পিঁড়িতে বসবেন মোস্ট এলিজিবল ব্যাচেলর সালমান!’